স্টাফ রিপোর্টার :: রাজনীতির কঠিন সময়ে গণতান্ত্রিক সমাজ নির্মাণই ছিল শফিকুল গানি স্বপনের স্বপ্ন। একটি প্রগতিশীল-গণতান্ত্রিক-দুবৃর্ত্তায়ন মুক্ত রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার জন্যই তিনি রাজনীতি করেছেন। দুর্নীতি-দুর্বৃত্তায়ন আর স্বজনপ্রীতির বিরুদ্ধে শফিকুল গানি স্বপন ছিলেন আপোষহীন- বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।

শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) নয়াপল্টনের যাদু মিয়া মিলনায়তনে বাংলাদেশ ন্যাপ’র সাবেক চেয়ারম্যান ও প্রাক্তনমন্ত্রী জননেতা শফিকুল গানি স্বপনের ৭২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ আয়োজিত স্মরণসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের উদ্দেশ্য ছিল একটি মানবিক মর্যাদাশীল রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা। সেই উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন থেকে আমরা এখনও বহু দূরে আছি। দুর্নীতিরমত মহামারি আমাদের সেই স্বপ্নকে গলা টিপে হত্যা করতে চাইছে। চারদিকে লুটেরা আর চাটুকারদের জয়জয়কার। এই অবস্থায় শফিকুল গানি স্বপনের মত যোগ্য নেতৃত্ব জাতি প্রত্যাশা করে।

তিনি আরো বলেন, লুটেরাদের ষড়যন্ত্রের কারণেই আজ রাজনৈতিক বিভাজন এত বড় হয়ে উঠেছে যে জাতীয় এজেন্ডা নির্ধারনের মধ্য দিয়ে জাতীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠা আজ দুরুহ আর দু:স্বপ্নে পরিনত হয়েছে। এই অবস্থা উত্তরনের জন্য এখন প্রয়োজন দুর্নীতি আর দুবৃত্তায়নের বিরুদ্ধে সংগ্রাম শুরু করা।

তিনি আরো বলেন, আধুনিক ও প্রগতিশীল রাজনীতির অনুসারী হিসাবে শফিকুল গানি স্বপন দলের শাসন নয়, জনগণের শাসন চাইতেন। আর রাজনীতিও করতেন তার ভিত্তিতে।

বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া’র সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশগ্রহন করেন, বাংলাদেশ জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা এম এ জলিল, বাংলাদেশ গণসংস্কৃতি দল-বাগসদ চেয়ারম্যান সরদার শামস আল মামুন, এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, জাতীয় জনতা ফোরাত সভাপতি মোহাম্মদ অলিদ সিদ্দিকী তালুকদার, ন্যাপ ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, যুগ্ম মহাসচিব এহসানুল হক জসীম, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কামাল ভুইয়া, ঢাকা মহানগর উল্টর আওয়ামী লীগ নেতা আ স ম মোস্তফা কামাল প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here