‘খালেদা জিয়াকে মানবিক বিবেচনায় মুক্তি দিন’

স্টাফ রিপোর্টার :: উন্নত চিকিৎসার জন্য বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মানবিক বিবেচনায় মুক্তি দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তার স্বজনরা।

মঙ্গলবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে তার সঙ্গে দেখা করে সরকারের প্রতি এ আহ্বান জানানো হয়। এ সময়

খালেদা জিয়ার সেজো বোন সেলিমা ইসলাম বলেন, খালেদা জিয়ার শরীর খুবই খারাপ। তিনি শ্বাসকষ্টে ভুগছেন। কথাই বলতে পারছেন না। সরকারকে বলছি- এটা বিবেচনা করুন। খালেদা জিয়ার এই শারীরিক অবস্থা, শ্বাসকষ্ট ও তার বয়স সরকারকে বিবেচনা করা উচিত। মানবিক দিক বিবেচনা করে তাকে মুক্তি বা জামিন দেওয়া উচিত। সরকারের কাছে খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করছি।

খালেদা জিয়ার বর্তমান অবস্থা তুলে ধরে সেলিমা ইসলাম বলেন, খালেদা জিয়া পাঁচ মিনিটও দাঁড়াতে পারছেন না। তার বাথরুম থেকে বেডের দূরত্ব সামান্য। সেখানে যেতেও তার ২০ মিনিট সময় লাগে। তার বাঁ হাতটা সম্পূর্ণ বেঁকে গেছে, এখন ডান হাতও বেঁকে যাচ্ছে। তিনি খেতে পারছেন না, খেলেই বমি হয়ে যাচ্ছে। জ্বর আছে গায়ে, শরীরে প্রচণ্ড ব্যথা। এ অবস্থায় তার উন্নত চিকিৎসা খুবই প্রয়োজন। তার শরীর এত খারাপ যে, এ মুহূর্তে যদি উন্নত চিকিৎসা না দেওয়া যায়, তাহলে তার কী হবে- এটা বলতে পারছি না।

এ সময় আবেগঘন কণ্ঠে সেলিমা ইসলাম বলেন, আমাদের আবেদন, তাকে মুক্তি দেওয়া হোক। অন্তত উন্নত চিকিৎসাটুকু যেন করতে পারি- এটাই আমাদের একমাত্র আবেদন। পরিবারের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে কোনো আবেদন করা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এখনও আবেদন করিনি। কিন্তু আমরা জাতির কাছে ও দেশবাসীর কাছে আবেদন জানাচ্ছি, আপনারা সবাই খালেদা জিয়ার জন্য দোয়া করবেন। তিনি যেন দ্রুত মুক্তি পান সে চেষ্টা করবেন।

বিএসএমএমইউ উপাচার্যের কাছে খালেদা জিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে তাদের ভাই একটি আবেদনপত্র দিয়েছেন। ওই বিষয়ে জানতে চাইলে সেলিমা ইসলাম বলেন, খালেদা জিয়াকে তো মিথ্যা একটা মামলায় সাজা দেওয়া হয়েছে। আজ দুই বছর ধরে তিনি কারান্তরীণ। তিনি যে অবস্থায় কারাগারে এসেছিলেন সে অবস্থা এখন তার নেই। তিনি আগে হেঁটে চলতে পারতেন। এখন তো পাঁচ মিনিটও দাঁড়াতে পারেন না। এখানে ডাক্তাররা যে চিকিৎসা দিচ্ছেন তাতে কোনো উন্নতি হচ্ছে না। খালেদা জিয়ার ডায়াবেটিস কোনোভাবে নিয়ন্ত্রণে আসছে না বলেও জানান তিনি।

বিকেল সাড়ে ৩টায় খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে আসেন তার পাঁচ স্বজন। তারা হলেন- বোন সেলিমা ইসলাম, ছোট ভাইয়ের স্ত্রী কানিজ ফাতিমা, তার ছেলে অভিক এস্কান্দার, তারেক রহমানের স্ত্রীর বড় বোন শাহিনা জামান খান বিন্দু ও কোকোর শাশুড়ি মুকরেমা রেজা (ফাতিমা রেজা)। এক ঘণ্টা সাক্ষাৎ শেষে বেরিয়ে আসেন তারা।

গত বছরের ১ এপ্রিল থেকে বিএসএমএমইউর কেবিন ব্লকে চিকিৎসীন আছেন খালেদা জিয়া।

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ডা. সাবরিনা চৌধুরী গ্রেপ্তার

স্টাফ রিপোর্টার :: করোনা টেস্ট জালিয়াতির ঘটনায় জেকেজির চেয়ারম্যান ও জাতীয় হৃদরোগ ...