ইউনাইটেড নিউজ ডেস্ক :: স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল।  নিজেকে সুস্থ ও সুন্দর রাখতে তাই প্রয়োজন ভালো কিছু অভ্যাসের। প্রতিদিনের রুটিনে যদি সেই অভ্যাসগুলো নিয়মিত অনুসরণ করেন, তাহলে সুস্থ, সুন্দর ও উজ্জ্বল ত্বকের অধিকারী হওয়াটা খুব কঠিন কিছু হবে না। সকালে ঘুম থেকে ওঠে মেনে চলুন কিছু নিয়ম, দেখুন ত্বকের জেল্লা ঠিকই বাড়বে।

ত্বক পরিষ্কার রাখুন

রাতে ঘুমিয়ে থাকলে শরীরের বিশ্রাম হয় ঠিকই কিন্তু এ সময়টাতে মুখে তেল-ময়লা জমে যায়। তাই সকালে ঘুম থেকে উঠেই ত্বক ভালো করে পরিষ্কার করা উচিত। সকালে উঠে কোমল ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। এরপর হালকা ময়েশ্চারাইজার মাখুন। এর ফলে সারা দিন বেশ সতেজ অনুভব করবেন।

নিয়মিত ব্যায়াম

সকালে ঘুম থেকে উঠে নিয়মিত হালকা ব্যায়াম করার অভ্যাস করতে হবে। কর্মক্ষেত্রে যাওয়ার কারণে সময় স্বল্পতার জন্য যদি বেশি ব্যায়াম করতে না পারেন, তারপরেও কিছু ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজ অন্তত করুন। সকালে ব্যায়াম করলে শরীর সারাদিন চাঙা থাকে। এছাড়া ঘামের মাধ্যমে শরীর থেকে ক্ষতিকারক পদার্থ বেরিয়ে যায়। এটি ত্বকের সৌন্দর্য বাড়াতে সাহায্য করে।

লেবু-মধুর পানি

সকাল বেলা সবচেয়ে ভালো অভ্যাস হলো হালকা গরম পানিতে লেবু ও মধু মেশানো এক গ্লাস পানি পান করা। লেবুর রসে পর্যাপ্ত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ভিটামিন সি রয়েছে, যা ত্বককে সতেজ ও প্রাণবন্ত করে। ত্বকের জেল্লা বৃদ্ধি করে। এছাড়া শরীরের যাবতীয় অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বের করে শরীরকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। এবং লেবু-মধু পানির এই মিশ্রণটি লিভার সুস্থ রাখতেও সাহায্য করে

ফল-শাকসবজি খান

শরীর সুস্থ রাখতে শাকসবজি ও ফল অনেক উপকারি ভূমিকা পালন করে। পাশপাশি এটি ত্বককে সুন্দর ও প্রাণবন্ত রাখতে সাহায্য করে। তাই প্রতিদিনের সকালের নাস্তায় ফল বা সবজি রাখার চেষ্টা করুন। আস্ত ফল বা ফলের রস খেতে পারেন। কিংবা শাকসবজি দিয়ে স্মুদি বা জুস বানিয়েও খেতে পারেন। নিয়মিত খেলে এটি ওজনকে নিয়ন্ত্রণে রাখে। ক্ষেত্রবিশেষে ওজন কামতেও ভূমিকা রাখে। আর ফল-শাকসবজি খেলে দেখবেন আপনার ত্বক এমনিতেই হয়ে ওঠেছে সুন্দর ও উজ্জ্ল।

ময়েশ্চারাইজারের ব্যবহার

সব সময় ত্বকের উপযোগী ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করবেন। কারণ ময়েশ্চারাইজার ব্যবহারের পর ত্বকে টান না ধরলে বা ত্বক তেলতেলে না লাগলে বুঝতে হবে ময়েশ্চারাইজার ঠিক আছে। ময়েশ্চারাইজারে এসপিএফ থাকলে তা আপনাকে রোদ থেকেও সুরক্ষা দেবৈ।

পানি পান করুন

প্রতিদিন সঠিক পরিমাণে পানি পান করলে শরীরে রোগবালাই কম হয়। আমাদের শরীরে শতকরা ৭৫ ভাগ তরল থাকে। তা কোনোভাবে কমে গেলেই নানান সমস্যা দেখা দেয় শরীরে। এজন্য প্রতিদিন ৪.৫ থেকে ৫.৫ লিটার পানি পান করা উচিত। সকালে উঠেই প্রথমে পানি খাওয়ার চেষ্টা করবেন। এক্ষেত্রে হালকা গরম পানি খেতে পারেন। যা ওজন নিয়ন্ত্রণ রাখতে সাহায্য করে। এছাড়া ব্রণের সমস্যা দূর, চুল পড়া, অকালপক্কতা ও খুশকি থেকে মুক্তি পাওয়া যায় হালকা গরম পানি পান করলে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here