ব্রেকিং নিউজ

কয়লা বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মান পরিদর্শনে নসরুল হামিদ

Kolaparaমিলন কর্মকার রাজু কলাপাড়া(পটুয়াখালী) প্রতিনিধি :: বিদ্যুত, জ্বালানী ও খনিজসম্পদ মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এমপি বলেছেন, পায়রা সমুদ্র বন্দর ও প্রস্তাবিত পটুয়াখালীর পায়রা ১৩২০ মেঘাওয়াট আলট্রা সুপার ক্রিটিক্যাল কয়লা বিদ্যুত কেন্দ্র কে ঘিরে কলাপাড়া হবে দক্ষিনাঞ্চলের বানিজ্য নগরী।

এ্বই বিদ্যুত কেন্দ্র থেকে ঢাকায়ও বিদ্যুত সরবরাহ করা হবে। আগামী ৫/৬ বছরের মধ্যে এ বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মান কাজ শেষ হবে।

শুক্রবার দুপুরে পটুয়াখালীর পায়রা প্রস্তাবিত ১৩২০ মেঘাওয়াট আলট্রা সুপার ক্রিটিক্যাল কয়লা বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মানস্থল পরিদর্শন শেষে উপস্থিত সুধী সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, এখানে বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মান হলে কলাপাড়া হবে দেশের সর্ববৃহৎ এবং বাংলাদেশ হবে বিশ্বের সর্ববৃহৎ বানিজ্য নগরী। বিদ্যুত কেন্দ্রকে ঘিরে এখানে হাজার হাজার মিল-কারখানা নির্মান হবে। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষ এখানে আসবে কাজের জন্য।

সভায় সাবেক পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব মাহবুবুর রহমান তালুকদার বলেন, এক শ্রেনীর মানুষ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড বাধাগ্রস্থ করার চেষ্টা করছে। এখানে বিদ্যুতকেন্দ্র নির্মান হলে এক শতাংশ জমির দাম হবে ৫০ লাখ থেকে কোটি টাকা। তখন মানুষের আর দুঃখ থাকবে না।

সভার শুরুতেই বিদ্যুত প্রতিমন্ত্রীকে বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মান প্রকল্প এলাকার কাজের ধরন এবং পরিবেশগত বিষয় নিয়ে প্রকল্পের ডিজাইন উপস্থাপনা করেন নর্থ-ওয়েষ্ট পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানী লিমিটেড’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ এম খোরশেদুল আলম।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আবুল কালাম আজাদ, বিদ্যুত সচিব মনোয়ার ইসলাম এনডিসি, নৌ-পরিবহন মন্ত্রনালয়ের সচিব সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল নিজাম উদ্দিন আহমেদ বিএন, বিআইএফপিসিএল’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিজয় শঙ্কর তাম্রকার, চায়না সিএসসি’র মিঃ কিউ উই, মিষ্টার ওয়াং জিন, বিদ্যুত বিভাগের উপ সচিব মো. সেলিম উদ্দীন, সিনিয়র সচিব মো. জিল্লুর রহমান, বিআইএফপিসিএল’র উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক উজ্জ্বল কান্তি ভট্রাচার্য, নওপাজেকো’র তত্ত্বাবধায়ক প্রকোশলী এসএম জোয়ারদ্দার, নির্বাহী পরিচালক(প্রকৌশল) হরেন্দ নাথ মন্ডল প্রমুখ।

উল্লেখ্য, পটুয়াখালীর কলাপাড়ার ধানখালী ইউনিয়নের চর নিশান বাড়িয়া, মধুপাড়া ও নিশানবাড়িয়া মৌজায় নয়শত নিরানব্বই দশমিক আট এক জমির উপর নির্মান হবে পায়রা ১৩২০ মেঘাওয়াট আলট্রা সুপার ক্রিটিক্যাল কয়লা বিদ্যুত কেন্দ্র।

নর্থওয়েস্ট পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি এবং চায়না ন্যাশনাল মেশিনারি ইমপোর্ট এন্ড এক্সপোর্ট কর্পোরেশন (সিএমসি) বাংলাদেশ এবং চীনের যৌথ উদ্যোগে কলাপাড়ায় বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়। দুই বিলিয়ন ডলারের বিদ্যুত প্রকল্পটিতে বাংলাদেশ এবং চীন যৌথভাবে বিনিয়োগ করবে।

এ বছরের ২১ মার্চ এ বিষয়ে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।

 

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

পণ্যের মার্কেটিং কিভাবে করবেন?

ঝুমা হোসেনঃ একজন ব্যবসায়ীর জন্য পণ্যেরমার্কেটিং করাটা খুবই জরুরী বিষয়। পণ্যের মার্কেটিং ...