ডেস্ক রিপোর্ট :: মহামারীর কারণে পরীক্ষা না নিয়ে আগের ফলাফলের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের এইচএসসি ও সমমান উত্তীর্ণ ঘোষণা করার সিদ্ধান্তকে সরকারের ‘ক্ষমতা দখলে রাখার’ বাসনা হিসেবে দেখছে বিএনপি।

সোমবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ প্রতিক্রিয়া জানান।

তিনি বলেন, “পৃথিবীতে এমন নজিরবিহীন মিডনাইটের অটোএমপিদের সংসদ আর নেই। তেমনিভাবে তারা এবার অটো পাস আর জিপিএ-৫ এর ছড়াছড়ি দেখালেন, সেটিরও নজির পৃথিবীতে নেই।

“মিডনাইট নির্বাচন করে ক্ষমতা দখলে রাখতে হলে শেখ হাসিনার দরকার মেরুদণ্ডহীন একটি অশিক্ষিত জাতির। তাই নজিরবিহীন অটো পাস দিলেন কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের।”

গত বছরের ১ এপ্রিল থেকে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরুর কথা থাকলেও করোনাভাইরাসের প্রকোপ বাড়তে শুরু করলে তা স্থগিত করা হয়।

মাসের পর মাস অপেক্ষা করেও পরীক্ষা নেওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি না হওয়ায় গত অক্টোবর সরকার জানায়, পঞ্চম ও অষ্টমের সমাপনীর মতো এইচএসসি পরীক্ষাও নেওয়া যাচ্ছে না।

এরপর আইন সংশোধন করে পরীক্ষা ছাড়াই মূল্যায়নের পথ বের করে এই ফল দেওয়া হল।

‘সাবজেক্ট ম্যাপিং’ করে উচ্চ মাধ্যমিকের ফল ঘোষণা করায় আগের দুই পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেলেও এবার ৩৯৬ জন পূর্ণাঙ্গ জিপিএ-৫ পায় পাননি।

আবার জেএসসি-জেডিসি এবং এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় জিপিএ-৫ না পেলেও এবারের ফলাফলে ১৭ হাজার ৪৩ জন জিপিএ-৫ পেয়েছে।

পরবর্তী শিক্ষাজীবনে এই ‘অটোপাসের’ গুরুত্ব ও প্রভাব নিয়ে খুঁতখুঁতে মনোভাব প্রকাশ করেছেন অনেক শিক্ষার্থী।

তবে মহামারীর কারণে এবার ঘোষিত এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল নিয়ে বিরূপ মন্তব্য না করতে সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, গণতন্ত্রের স্বার্থে শক্তিশালী বিরোধী দল নিঃসন্দেহে গুরুত্বপূর্ণ- প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্য ‘জনগণের সঙ্গে ঠাট্টা’।

রোববার জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, গণতন্ত্রের জন্য শক্তিশালী বিরোধী দল অবশ্যই দরকার।

রিজভী বলেন, “প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্র হত্যার বিজয় অভিযানের অগ্রগতির ছায়াসঙ্গী করেছেন বিরোধী দলের ওপর পৈশাচিক নিপীড়ন-নির্যাতন চালিয়ে। গণতন্ত্রকে কবরে শায়িত করে এখন গণতন্ত্র ধারা অব্যাহত রাখতে চান তিনি, শক্তিশালী বিরোধী দল চান।

“জনগণ জানে প্রধানমন্ত্রী নির্ভেজাল টাটকা মিথ্যা কথা বলছেন। আদতে তিনি চান বিরোধী ও মতের কবর রচনা করতে, যা তার গত এক যুগের কর্মকাণ্ডে হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছে দেশের মানুষ।”

নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবদুস সালাম, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, কেন্দ্রীয় নেতা মীর সরফত আলী সপু, আবদুস সালাম আজাদ, বেলাল আহমেদ, মশিউর রহমান বিপ্লব, খান রবিউল ইসলাম রবি উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here