কোম্পানীগঞ্জে নবজাতক হত্যার দায়ে স্বামীর মামলায় স্ত্রী-শাশুড়ি গ্রেফতার

নোয়াখালী কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বড় রাজাপুর গ্রামে নবজাতক কন্যা সন্তনকে হত্যা করে লাশ গোপন করার ৭দিন পর শুক্রবার বিকেলে শংকর বংশী খাল থেকে ওই নবজাতকের লাশ পুলিশ উদ্ধার করেছে। কোম্পানীগঞ্জ থানায় শিশু হত্যা মামলা দায়ের করার পর পুলিশ শুক্রবার রাতে সেনবাগ উপজেলার ছাদেকপুর গ্রামের মুসলীম পন্ডিত বাড়ী থেকে অভিযুক্ত ইয়াসমিন আক্তার মুন্নি (১৯) ও তার মা ছালেহা বেগম (৫০) কে গ্রেপ্তার করেছে। শনিবার সকালে নবজাতক শিশুর ময়নাতদন্ত ও ডিএনএ পরীক্ষার জন্য নোয়াখালীর জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়েছে। শনিবার দুপুরের পর গ্রেপ্তারকৃত দু’জনকে পুলিশ কারাগারে পাঠিয়েছে। ‘

কোম্পানীগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, গত বছরের ৮ জুলাই কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বড় রাজাপুর গ্রামের মৃত মানিক হোসেনের ছেলে আমির হোসেন রাজুর (১৯) সাথে সেনবাগ উপজেলার ছাদেকপুর গ্রামের নুরুল আমিনের মেয়ে ইয়াছমিন আক্তার মুন্নির (১৯) সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পর রাজু জানতে পারে তার স্ত্রী মুন্নি বিয়ের পূর্ব থেকেই গর্ভবতী অবস্থায় আছে। এ নিয়ে রাজুর শ্বশুর ও তাদের পরিবারের মধ্যে দ্বন্দ দেখা দেয়। বিয়ের ৭ মাসের মাথায় গত ৩১ ডিসেম্বর রাজুর স্ত্রী মুন্নি একটি কন্যা সন্তন প্রসব করে। গভীর রাতে সন্তন প্রসবের সাথে সাথে ওই কন্যা সন্তানকে হত্যা করে পাশ্‌বর্তী শংকর বংশী খালে ফেলে দিয়েছে বলে মুন্নির স্বামী রাজু থানায় অভিযোগ করে। সনত্মান প্রসবের ৩দিন পর রাজুর স্ত্রী মুন্নি স্বামীর বাড়ি থেকে পিত্রালয়ে বেড়াতে যায়। শুক্রবার শংকর বংশী খাল থেকে বাজারের ব্যাগ ভর্তি শিশু কন্যার লাল উদ্ধারের পর এলাকায় তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়।

এ ঘটনা নিয়ে মুন্নির স্বামী আমির হোসেন রাজু কোম্পানীগঞ্জ থানায় তার স্ত্রী ইয়াছমিন আক্তার মুন্নি ও শ্বাশুড়ী সালেহা বেগমকে আসামী করে মামলা দেয়। পুলিশ ওই রাতেই সেনবাগে অভিযান চালিয়ে নবজাতক হত্যাকারী মুন্নি ও তার মা সালেহাকে গ্রেপ্তার করে। মুন্নি ও তার মা সালেহা সাংবাদিকদের জানান, উদ্ধারকৃত নবজাতক শিশু কন্যাটি তাদের নয়। সংসার ভাঙ্গার জন্য মুন্নির স্বামী রাজুর পরিবার তাদের ওপর মিথ্যা অপবাদ ও সাজানো মামলা দিয়ে তাদেরকে হয়রানি করছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ এমরান আলী পিপিএম জানান, ময়নাতদন্ত রিপোর্ট ও ডিএনএ টেষ্ট রিপোর্টের পর জানা যাবে শিশুটি কার এবং হত্যাকারী কে। এব্যপারে পুলিশি তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।

ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডট কম/মুহাম্মদ রহমত উল্যাহ/নোয়াখালী

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে বীরগঞ্জে ইউপি সদস্যকে ১লাখ টাকা জরিমানা

রফিকুল ইসলাম ফুলাল, দিনাজপুর প্রতিনিধি :: দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপেজলায় পরিবেশ বিপন্ন করে ...