ব্রেকিং নিউজ

কোভিড-উত্তর বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হবে ‘ব্লেন্ডেড ক্যাম্পাস’: ড. আতিউর রহমান

স্টাফ রিপোর্টার :: কোভিড-১৯ যেমন গোটা বিবিশ্বকে চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলেছে, তেমনি তা সম্ভাবনার দ্বারও খুলে দিয়েছে। এই সংকট শিক্ষার ওপর বড় আঘাত হেনেছে। তবে সমস্যা যাই হোক, এই অভিজ্ঞতা কোভিড-উত্তর বাংলাদেশে বিবিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে ‘ব্লেন্ডেড ক্যাম্পাস’ গড়তে সহায়তা করবে। অর্থ্যাৎ করোনা চলে যাওয়ার পর অফলাইনে যেমন শিক্ষা কার্যক্রম চলবে, তেমিন অনলাইনও বহাল থাকবে। নতুনভাবে গড়ে উঠবে আমাদের বিবিশ্ববিদ্যালয়গুলো।

গ্রিন ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ আয়োজিত বুধবার নবীনবরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ও ঢাকা বিবিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আতিউর রহমান এসব কথা বলেন।

গ্রিন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. গোলাম সামদানী ফকিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. ফায়জুর রহমান এবং রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মো. সাইফুল ইসলাম বক্তব্য রাখেন।

সভায় আতিউর রহমান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় হলো ছাত্র-ছাত্রীদের মানবিক মূল্যবোধ এবং মনের জানালা খুলে দেয়ার স্থান। কর্মজীবনের জন্য উপযুক্ত দক্ষতা অর্জনে সহায়তা করা ছাড়াও নিয়োগদাতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করিয়ে দেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যতম কাজ। তিনি বলেন, যেসব ছাত্র-ছাত্রীর ভালো ডিজিটাল ডিভাইস ও ডাটা কেনার সামর্থ্য নেই; তাদের জন্য বিশেষ তহবিল গঠন করে নিয়মিত সহায়তা বা স্কলারশিপের ব্যবস্থা করা বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্বের একটি অংশ।

অনুষ্ঠানে অধ্যাপক ড. মো. গোলাম সামদানী ফকির বলেন, বর্তমান বিবিশ্ব প্রতিযোগিতার। করোনা মহামারী তাতে চ্যালেঞ্জ বাড়িয়ে দিয়েছে। বিবিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার আগ পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা বই থেকে শিক্ষার্থী নিয়ে থাকে, কিন্তু বিবিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার পর প্রকৃতি ও জীবন থেকে শিক্ষা নিতে হয়। এ সময় তিনি শিক্ষার্থীদের একুশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় শিক্ষার্থীদের সব ধরনের গুণাবলী অর্জনের আহ্বান জানান।

উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, অনলাইন সম্ভাবনার সঙ্গে তাল মিলিয়ে গ্রিন ইউনিভার্সিটিও এগিয়ে চলেছে। অতএব বৈশ্বিক মহামারীতে অনলাইন শিক্ষার প্ল্যাটফর্মের সর্বোচ্চ ব্যবহার শিখতে হবে। এ সময় শিক্ষার্থীদের বিষয়ভিত্তিক জ্ঞানের পাশাপাশি মানবিক মূল্যবোধে উদ্বুদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

শিক্ষার্থীদের যেকোনো ধরনের সমস্যা সমাধানের আবিশ্বাস দেন কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. ফায়জুর রহমান। তিনি বলেন, অনলাইন শিক্ষার সীমাবদ্ধতা নেই, দেশ কিংবা বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে শিক্ষার্থীরা অনলাইনে শিক্ষা নিতে পারে।

অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিষয়ের সঙ্গে নবীন শিক্ষার্থীদের পরিচয় করিয়ে দেন রেজিস্ট্রার মো. সাইফুল ইসলাম।

 

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

সাহিত্য সংগঠন বানালেস’র বর্ষপূর্তি ও নুরজাহান পদক প্রদান

স্টাফ রিপোর্টার :: বাংলাদেশ নারী লেখক সোসাইটি গত ১৬ অক্টোবর দীপনপুর অডিটরিয়মে ...