ডেস্ক নিউজ :: যেসব নারীরা কর্মক্ষেত্রে এবং বাড়িতে বেশিরভাগ সময় বসে কাটান তাদের  জরায়ু ও স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি অন্যদের তুলনায় বেশি৷ সম্প্রতি সুইডেনের লুন্ডা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় উঠে এসেছে চাঞ্চল্যকর এই তথ্য৷ গবেষণা তথ্যটি সম্প্রতি আমেরিকান অ্যাসোসিয়েশন ফর ক্যান্সার রিসার্স ইন ফিলাডেলফিয়াতে উপস্থাপন করা হয়।

জানা গিয়েছে, গবেষকরা ২৫ বছর ধরে প্রায় ২৯ হাজার মহিলার উপর এই বিষয়ে গবেষণা চালান। আর তারপরই এই তথ্য প্রকাশ্যে আনেন। যেসব মহিলাদের পর্যবেক্ষণের আওতায় রাখা হয়েছিল তাদের বয়স ২৫ থেকে ৬৪ বছরের মধ্যে। তারা অবশ্য শুরুতে ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন না।

গবেষকরা মহিলাদেরকে তিনটি ভাগে বিভক্ত করে পর্যবেক্ষণ করেন। প্রথমভাগে ছিলেন, যেসব মহিলারা অফিসে কাজ করেন কিন্তু কোন খেলাধুলায় অংশগ্রহণ করে না, দ্বিতীয় ভাগে ছিলেন যারা অফিসে কাজ করেন এবং বিনোদনের জন্য খেলাধুলায়ও অংশগ্রহণ করেন এবং তৃতীয় ধাপে ছিলেন ওই সকল কর্মজীবী মহিলা যাদেরকে কর্মের প্রয়োজনে বেশিক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকতে হয় এবং তারা খেলাধূলাতেও অংশগ্রহণ করেন।

দীর্ঘ এই গবেষণাতে দেখা গিয়েছে যেসব মহিলারা কর্মক্ষেত্রে কিংবা অবসর সময়ে সারাক্ষণ বসেই কাটান তারা কর্মক্ষেত্রে সারাক্ষণ বসে না থাকা মহিলাদের তুলনায় ২.৪ শতাংশ স্তন ও জরায়ু ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছেন। ঋতুচক্র বন্ধের আগেই স্তন ও জরায়ুর ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছেন তারা। গবেষকরা কর্মজীবী নারীদের সারাক্ষণ বসে না থেকে ছোট ছোট কাজ করার পরামর্শ দিয়েছেন। যেমন কফি খাওয়া কিংবা একটু হাঁটাহাঁটি করা।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here