কৃষক বাঁচানোর দাবী পাইকগাছায়

কৃষক বাঁচানোর দাবী পাইকগাছায়

মহানন্দ অধিকারী মিন্টু, পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি :: খুলনার পাইকগাছায় এলাকা বাঁচাও-কৃষক বাঁচাও ও বন্ধ স্লুইচ গেট ছেড়ে পোল্ডারে পানি উত্তোলনের দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। রোববার বেলা ১১টার দিকে গড়ইখালীর মিনহাজ বাজার সংলগ্ন এলাকার জমি ও ঘের মালিকরা প্রতিপক্ষ ঘের মালিক এমরান-সঞ্জীব গংদের বিরুদ্ধে এ মানববন্ধন করেন।

এ কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে কানাখালীর জাহাঙ্গীর সরদার, খায়রুল মিস্ত্রী, আমিরুল সরদার, বকুল মন্ডল, কুমারেশ মন্ডল সহ অনেকেই জানান, ইমরান হেসেন ও সঞ্জীব মন্ডল গংরা ওয়াপদার ভিতর-বাহিরে দীর্ঘদিন ধরে চিংড়ি ঘের করে আসছিল। তাদের অভিযোগ আমাদের সামান্য জমা-জমির হারীর টাকা না দিয়ে বছরের পর বছর ধলে পেশিশক্তিতে কলা কৌশলে ঘের করত।

কিন্তু জমি মালিকরা চলতি মৌসুমে তাদের সম্পত্তি আলাদা করে পৃথক ভাবে চিংড়ী ঘের করছেন। এ কারনে ইমরান ও সঞ্জীবরা ক্ষিপ্ত হয়ে এলাকার মানুষের অর্থে তৈরী করা স্লুইস গেট ও পানি সরবরাহের বহুকালের ক্যানেল বন্ধ করলে পোল্ডার অভ্যন্তরে পানি না উঠায় প্রায় আড়াই হাজার একর সম্পতি মরুভূমিতে পরিণত হয়েছে।

মোস্তফা সানা, মাজেদ সানা, ওয়াজেদ সানা, শিক্ষক সুব্রত মন্ডল, বাচ্চু গাজীর অভিযোগ জাহাঙ্গীর বকুল ও ইমরান গংদের মধ্যে জমির বিরোধ ও দ্বন্ধের জেরে পানি উত্তোলন বন্ধ এর ফলে এলাকার অর্থনীতি ধ্বংসের পথে, চিংড়ি চাষ ও কৃষি হুমকির মুখে পড়েছে। ঘটনায় ইমরান গংদের প্রতি ইঙ্গিত করে তাঁরা উর্ধতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে দ্রুত বন্ধ ক্যানেল ও গেট ছেড়ে দিয়ে সংকট সমাধানের দাবী করেন।

ইতোপূর্বে শালিশী সভায় ঘের মালিক ইমরান ও সঞ্জীব মন্ডল বলেন, ডিড ও নিজস্ব জমি দিয়ে পানি সরানোর ক্যানেল ও ব্যক্তি আর্থায়নে গেট তৈরী করা। তাদের অভিযোগ প্রতিপক্ষ জাহাঙ্গীর ও বকুল গংরা ঘের থেকে ডিডকৃত ও রেকর্ডীয় জমি জোর করে বাঁধ দিলে এ পরিসি’তির সৃষ্টি হয়েছে যা বহুপথ গড়িয়েছে বলে তাঁরা দাবী করেন।

জানাগেছে চলতি মৌসিমে চিংড়ি ঘেরের বিরোধপূর্ণ সম্পত্তি নিয়ে দু’পক্ষের ঘের মালিক জাহাঙ্গীর ও বকুল গং এবং ইমরান ও সঞ্জীব গংরা একে অপরের বিরুদ্ধে পাল্টাপাল্টি দখল অভিযোগ তুলে থানা, পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ করেন। এ নিয়ে থানায় কয়েক দফা শালিশী সভা হলেও কোনো সমাধানে পৌঁছানো সম্ভব হয়নি বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন।

সর্বশেষ শনিবার সকালে এ ঘটনার তদন্তকালে অতিঃ পুলিশ সুপার সজীব খান দু’পক্ষকে শান্তিপূর্ণ অবস্থান বজায় রাখার নির্দেশনা দিয়ে বলেন, জায়গা-জমি ও স্বত্তের বিষয় আদালতের এখতিয়ার। এখানে পুলিশের কোনো হস্তক্ষেপ নেই বলে মন্তব্য করেন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

লক্ষ্মীপুরের নতুন এসপি

ড. এএইচএম কামরুজ্জামান লক্ষ্মীপুরের নতুন এসপি

জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: লক্ষ্মীপুরের নতুন এসপি হিসেবে যোগদান করবেন ...