ডেস্ক রিপোর্ট :: অর্থ ও মানব পাচারের অভিযোগে কুয়েতে আটক থাকা লক্ষ্মীপুর-২ আসনের আলোচিত সংসদ সদস্য কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের কারাদণ্ড দিয়েছে দেশটির আদালত। বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) চার বছরের সাজা দিয়ে এ রায় ঘোষণা করা হয়। মারাফি কুয়েতিয়া কোম্পানির অন্যতম মালিক সংসদ সদস্য পাপুল।

পাচারের শিকার পাঁচ বাংলাদেশির অভিযোগের ভিত্তিতে কুয়েতি প্রসিকিউশন পাপুলের বিরুদ্ধে মানবপাচার, অর্থপাচার ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের শোষণের অভিযোগ আনে । এর আগে ৬ জুন রাতে কুয়েতের মুশরিফ এলাকা থেকে পাপুলকে গ্রেফতার করা হয়।

মানবপাচারের দায়ে গ্রেফতার হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংসদকে জানিয়েছিলেন— দুই দেশের নাগরিক হলে পাপুলের সদস্য পদ বাতিল হবে। অবশ্য এর পরপরই কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়— পাপুল তাদের দেশের নাগরিক নন। অবশ্য নাগরিকত্ব ইস্যুতে না হলেও ফৌজদারি অপরাধে কুয়েতের আদালতে দুই বছরের বেশি সাজা হলে বাংলাদেশে তার সংসদ সদস্য পদ বাতিল হবে বলে মনে করেন আইনজ্ঞরা।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here