ডেস্ক রিপোর্ট::  তীব্র তাপপ্রবাহের মধ্যে অবশেষে কুমিল্লায় স্বস্তির বৃষ্টি দেখা দিয়েছে। বৃহস্পতিবার (২ মে) বিকেলে প্রায় ১০ মিনিটের মতো কুমিল্লার বিভিন্ন উপজেলায় বৃষ্টিপাত হয়। তবে শহরতলি ও আশপাশের এলাকাগুলোতে যে বৃষ্টিপাত হয়েছে তা উল্লেখযোগ্য ছিল না। তবুও বৃষ্টির পর জেলার তাপমাত্রা অনেকটা কমেছে।

জেলার সদর দক্ষিণ, আদর্শ সদর, দেবিদ্বার, বুড়িচং, বরুড়া, চান্দিনা এলাকায় বৃষ্টির খবর পাওয়া গেছে। এসব এলাকায় মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হয়েছে। পাশাপাশি হালকা দমকা হাওয়া ও বজ্রপাত হয়েছে।

বৃষ্টি হওয়ায় কিছুটা স্বস্তি নেমেছে জনজীবনে। অনেকেই বৃষ্টি হওয়ায় স্বস্তির কথা জানিয়েছেন ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামসহ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে।

তারেক উজ্জ্বল নামে শহরের এক বাসিন্দা বলেন, খুব ভালো লাগছে। বৃষ্টির জন্য দীর্ঘ যে প্রতীক্ষা, সেটির অবসান হল। বৃষ্টির পর রোদে গা জ্বলা যে ভাবটি ছিল এতদিন, সেটি আর নেই।

আব্দুল হোজ্জা নামের এক পথচারী বলেন, আল্লাহর কাছে শোকর যে তিনি অবশেষে বৃষ্টি দিয়েছেন। বৃষ্টির পর এখন অনেকটা স্বস্তি পাচ্ছে মানুষ।

কুমিল্লা আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইসমাঈল ভূইয়া বলেন, কুমিল্লার বিভিন্ন এলাকায় মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হলেও আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের যেখানে বৃষ্টির মাত্রা রেকর্ড করা হয় সেখানে উল্লেখযোগ্য ছিল না বলে বৃষ্টির মাত্রাটি বলা যাচ্ছে না। যেসব এলাকায় আকাশে বজ্রমেঘের পরিমাণ বেশি ছিল সেখানে মাঝারি ধরনের আর যেখানে মাত্রা কম ছিল সেখানে বৃষ্টিটা কম হয়েছে। কুমিল্লায় আজকের দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৫ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ২৮ দশমিক শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস। আজকে বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ছিল ৬৮ শতাংশ।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here