ব্রেকিং নিউজ

করোনা চিকিৎসা ও নিরাপত্তা সামগ্রী নিয়ে মালদ্বীপের পথে নৌবাহিনী জাহাজ

আএসপিআর :: বিশ্বব্যাপী করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলার অংশ হিসেবে প্রতিবেশী দেশ মালদ্বীপের প্রতিবন্ধুত্বপূর্ণ সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে বন্ধুত্বের নিদর্শনসরূপ প্রয়োজনীয় জরুরি ঔষধ, চিকিৎসা ও নিরাপত্তা সামগ্রী পিপিই, মাস্ক, গ্লাভস, জীবাণুনাশক হ্যান্ড স্যানিটাইজার ইত্যাদি পৌঁছে দিতে মালদ্বীপের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে নৌবাহিনী জাহাজ সমুদ্র অভিযান।

আজ বুধবার দুপুরে জাহাজটি এসকল সামগ্রী নিয়ে মালদ্বীপের রাজধানী মালের উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম নৌ জেটি ত্যাগ করে। এসময় কমান্ডার বিএনফ্লিট রিয়ার এডমিরাল এম মাহবুব-উল-ইসলামসহ চট্টগ্রাম নৌঅঞ্চলের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ আনুষ্ঠানিকভাবে জাহাজটিকে বিদায় জানান।

বাংলাদেশ সরকার বরাবরই প্রতিবেশী দেশের যেকোন প্রয়োজনে এগিয়ে এসেছে। এই ধারাবাহিতায় বিশ্বব্যাপী সংক্রমিত করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বন্ধুত্বের নিদর্শন হিসেবে বন্ধু প্রতিম মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহীম মোহাম্মদ সলিহ এর নিকট এসকল জরুরি ঔষধ, চিকিৎসা ও নিরাপত্তা সামগ্রী প্রেরণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। দ্রুততম সময়ের মধ্যে এসকল সামগ্রী সংগ্রহ করে নৌবাহিনী জাহাজের মাধ্যমে দেশটিতে পৌঁছে দেয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়।

এসকল সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে ২০ হাজার পিস পিপিই সেট, ৫ হাজার পিস হ্যান্ডস্যানিটাইজার, ৯৬০ পিস নিরাপত্তা চশমা ও ৪০ কার্টুন জরুরী ঔষুধ। পাশাপাশি প্রায় ৮৫ টন খাদ্য সামগ্রী ও পাঠানো হচ্ছে। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে এ সহায়তা দেশটিতে উদ্ভুত পরিস্থিতি মোকাবেলায় কার্যকর ভূমিকা রাখবে বলে আশা করা যায়।

জাহাজটি আগামী ২০ এপ্রিল মালদ্বীপে পৌঁছানোর পর দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রিয়ার এডমিরাল নাজমুল হাসান এর উপস্থিতিতে জাহাজের অধিনায়ক কমান্ডার এ এফ এম আহসান উদ্দিন মালদ্বীপ সরকারের প্রতিনিধি দলের নিকট বাংলাদেশের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এসকল সামগ্রী হস্তান্তর করবেন। জরুরি এ সহায়তা শেষে জাহাজটি আগামী ৩০ এপ্রিল দেশে ফিরবে বলে আশা করা যায়।

উল্লেখ্য, বন্ধু প্রতিম প্রতিবেশী দেশ মালদ্বীপের জরুরি প্রয়োজনে এর আগে ও বাংলাদেশ এগিয়ে এসেছিল। গত ২০০৪ সালে মালদ্বীপে ঘটে যাওয়া ভয়াবহ সুনামিতে ক্ষতিগ্রস্থদের সহায়তায় এবং ২০১৪ সালে দেশটির ডিস্যালাইনেশন প্লান্টে অগ্নি কান্ডের ঘটনায় পানি সংকট মোকাবেলায় বাংলাদেশ হাত বাড়িয়ে দিয়েছিল। সেসময় বাংলাদেশ সরকারের নির্দেশনায় নৌবাহিনী জাহাজের মাধ্যমে দেশটিতে জরুরি খাদ্য সহায়তা এবং বিশুদ্ধ খাবার পানি পৌঁছে দেয়া হয়েছিল। বাংলাদেশ ও মালদ্বীপের মধ্যে এধরনের সহযোগিতা দুই দেশের মধ্যকার বিদ্যমান বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে আর ও সুদৃঢ় করবে বলে আশা করা যায়।

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

নদী ভাঙ্গনে ২ ফেরিঘাট বিলিন: যাত্রীদের ভোগান্তি

মোহাম্মদ সুজন, মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ শিমুলীয়া-কাঠালবাড়ী নৌরুটে চলছে ৭ টি ফেরি চরম ভোগান্তিতে ...