ব্রেকিং নিউজ

করোনায় প্রশাসনকে সহযোগীতা করায় হামলা: আহত-৪

জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: করোনায় প্রশাসনকে সহযোগীতা করায় লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলায় এক পরিবারের ওপর হামলা চালিয়ে চার জনকে আহত করা হয়েছে। শুক্রবার রাতে উপজেলার বড়খেরী এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় মা-ছেলেসহ একই পরিবারের চার জন আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে রামগতি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় শনিবার দুপুরে রামগতি থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, বড়খেরী ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার সামছুদ্দোহা মুন্নার উদ্যোগে তার বাড়ির সামনের মাঠে শুক্রবার বিকেলে ফুটবল খেলার আয়োজন করা হয়। এলাকার বিবাহিত বনাম অবিবাহিত যুবকদের পৃথক টিম গঠন করে এ খেলার আয়োজন করেন তিনি। খেলা উপভোগ করার জন্য মাঠে আরো ৫০-৬০ জন দর্শক জমায়েত হন। খেলোয়াড় ও দর্শকদের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত না হওয়ায় উপজেলা প্রশাসনকে এই ফুটবল খেলা সম্পর্কে অবহিত করেন মেম্বারের প্রতিবেশী আরিফ। খবর পেয়ে উপজেলা প্রশাসন স্থানীয় চেয়ারম্যান হাছান মাকসুদ নিজামকে এ খেলা বন্ধ করার নির্দেশ প্রদান করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল মোমিনের নির্দেশ প্রাপ্ত হয়ে চেয়ারম্যান খেলা বন্ধ করে দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মুন্না মেম্বার শুক্রবার সন্ধ্যায় আরিফের বড় ভাই জমির উদ্দিন ও আরিফের মা জান্নাত বেগমকে তার নিজ বাড়িতে ডেকে নিয়ে মারধর করে রক্তাক্ত জখম করে। তাদের চিৎকার ও কান্নাকাটি শুনে তাদেরকে উদ্ধার করার জন্য আরিফ ও তার ছোট ভাই রাহিম সেখানে গেলে তাদেরকেও মারধর করে আহত করা হয়। আহত অবস্থায় তারা সবাই নিজ বাড়িতে ফিরে আসলে মুন্না পূনরায় তার দলবল নিয়ে আরিফদের বাড়িতে এসে আবারো তাদের ওপর হামলা করে গুরুতর আহত করে। পরে খবর পেয়ে রামগতি থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের উদ্ধার করে।

বড়খেরী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাছান মাকসুদ নিজাম জানান, শুক্রবার বিকেলে মেম্বার মুন্না ফুটবল খেলার আয়োজন করে। সরকারি নির্দেশনা মতে খেলায় সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত না হওয়ায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে সে খেলা বন্ধ করে দেই। এ ঘটনায় মুন্না মেম্বার ক্ষিপ্ত হয়ে তার পাশের বাড়ির জান্নাত বেগমসহ তার পবিারের সদস্যদের ওপর হামলা করে আহত করে।

রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সোলেমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় আহত জান্নাত বেগম বাদি হয়ে ৭ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ১২ জনকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান চলছে।

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

নাটোরে দুঃস্থ মহিলাদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ

  মোঃ আব্দুল হাকিম, নাটোর প্রতিনিধি :: নাটোরে ৪২ জন দুঃস্থ মহিলাদের ...