ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন কন্যা সন্তানের মা হয়েছেন। নাহ টুইন বেবি নয় ফুটফুটে এক কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়েছেন তিনি। ১৪ নভেম্বর সোমবার রাতে মুম্বাইয়ের ম্যারোলে সেভেন হিলস হাসপাতালে বচ্চন পরিবারের নতুন সদস্যটি পৃথিবীর মুখ দেখে। হাসপাতাল সূত্রে গেছে, মা ও শিশু দুজনই সুস্থ আছেন। হাসপাতালের ভিভিআইটি কেবিনে ডাক্তার ভিনিতা সালভির তত্ত্বাবধানে ঐশ্বরিয়া কন্যা সন্তান প্রসব করেন । মাতৃত্বকালীন অসুস্থতা কাটিয়ে ওঠার পর  দু -একদিনের মধ্যেই হাসপাতাল ছেড়ে বচ্চন পরিবারের বাসভবন জলসাতে ফিরবেন ঐশ্বরিয়া।

অমিতাভ বচ্চন টুইটারে ১৬ নভেম্বর বুধবার সকালে পুত্রবধূ ঐশ্বরিয়ার কন্যা সন্তান জন্ম দেয়ার খবরটি প্রকাশ করেন। তিনি লিখেছেন, ‘আমি একটি ফুটফুটে কন্যা শিশুর দাদা হয়েছি।’ তিনি আরো লিখেছেন, ঐশ্বরিয়ার শারীরিক অবস্থার পরবর্তী খবর এখনও পাওয়া যায় নি। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’ অভিষেক বচ্চনও প্রথম বাবা হওয়ার অভিব্যক্তি জানিয়ে টুইটার বার্তায় লিখেন, ‘এটা আমার মেয়ে!!!!’
ঐশ্বরিয়ার কন্যা শিশুটি দেখতে মায়ের মতোই কিনা তা জানতে ভক্তরা ভীষণ কৌতুহলী হয়ে উঠলেও আপাতত তা সম্ভব হচ্ছে না। কারণ দাদা অমিতাভ বচ্চনের অনুরোধে সেভেন হিলস হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ, সেখানে মিডিয়ার কাউকে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না। সন্তান প্রসবের পর ঐশ্বরিয়া ও তার নবজাত মেয়ের কোন ভিডিও চিত্র কিংবা ছবি গণমাধ্যমে প্রকাশ এড়াতে অবলম্বন করা হচ্ছে  বাড়তি সতর্কতা। হাসপাতালের কর্মচারীদের ঐশ্বরিয়ার কক্ষে মোবাইল ফোন নিয়ে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। তাছাড়া জলসাতে অবস্থানরত বচ্চন পরিবারের ঘনিষ্ঠ আত্মীয়-স্বজনরাও এ 16.11-13বিষয়ে মিডিয়ার সামনে মৌনতা অবলম্বন করছেন।
ঐশ্বরিয়ার সন্তান গর্ভধারনের খবর অমিতাভ সর্বপ্রথম টুইটার বার্তায় ভক্তদের জানিয়েছিলেন। ৫ মাস পর আবারও তিনি টুইটার বার্তায় ঐশ্বরিয়ার কন্যা সন্তান প্রসবের খবর বিশ্ববাসীকে জানালেন। ঐশ্বরিয়া গর্ভধারনের পর অভিষেককে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, ছেলে না মেয়ে সন্তানের বাবা হতে চান ? এমন প্রশ্নের জবাবে অভিষেক বলেছিলেন, ‘ কন্যা সন্তান আমার খুব প্রিয়। তবে প্রথম সন্তান সৃষ্টিকর্তা যা দেবেন তাই আমাদের জন্য আর্শীবাদ।’
বিশ্ব সুন্দরী খেতাব জয়ী বলিউড অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই ২০০৭-এর ২০ এপ্রিল বিয়ে করেন অভিষেক বচ্চনকে। গত বছরই ঐশ্বরিয়া মা হচ্ছেন বলে একটি গুজব ছড়িয়ে পড়ে। পুত্রবধূর মা হওয়ার সঠিক খবরটি চলতি বছরের ২১ জুন টুইটার প্রকাশ করেন অমিতাভ বচ্চনই। সেই থেকে ঐশ্বরিয়ার সর্বশেষ খবর জানতে ভক্তরা কৌতুহলী চিকিৎসকরা সময় বেধে দেন নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে মা হবেন ঐশ্বরিয়া। শুরু হয় ঐশ্বরিয়ার সন্তান প্রসব নিয়ে মিডিয়াসহ বিশেষজ্ঞদের নানা জল্পনাকল্পনা।
১১.১১.১১ তে তিনি প্রথম সন্তান জন্ম দিচ্ছেন এমন একটি গুজবে কতিপয় লোক ১৫০ কোটি রূপি বাজি পর্যন্ত ধরেন। কিন্তু ১১ নভেম্বর সন্তান জন্ম না হওয়ায় তারা নিরাশ হন। সন্তান প্রসবের জন্য ঐশ্বরিয়া সোমবার হাসপাতালে ভর্তি হন গত ১৪ নভেম্বর। চিকিৎসকরা সন্তান প্রসবের চুড়ান্ত তারিখ ১৭ নভেম্বর নির্ধারণ করেছিলেন। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের আগেই পৃথিবীতে এলো নবাগত কন্যা শিশুটি ।
ঐশ্বরিয়ার  তারকা হয়ে উঠার গল্প তো প্রায় সবারই জানা। ঐশ্বরিয়া রাই জন্ম নেন ভারতের ম্যাঙ্গালুরে ১৯৭৩ সালের ০১ নভেম্বর। তার বাবা কৃষ্ণারাজ রাই ছিলেন একজন জীবতত্ত্ববীদ, মা বৃন্দা রাই পুরোপুরি একজন গৃহিনী। এরকমই একটি সাধারণ পরিবারে জন্ম নিয়ে ঐশ্বরিয়া হয়ে উঠেছেন অসাধারণ।  মায়ের মতো মেয়েও হবে অসাধারণ সৌন্দর্যে অধিকারী, সেই সঙ্গে দাদী জয়া বচ্চনের মতো অসাধারণ গুণবতী; এই প্রত্যাশা এখন বচ্চন পরিবারের কোটি কোটি ভক্তের।

ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডট কম/ইউ এন/নিউজ

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here