ডেস্ক রিপোর্ট::  উপজেলা নির্বাচনে ভোটারদের উপস্থিতির বিষয়ে নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর বলেছেন, ধান কাটার মৌসুম, বৈরী আবহাওয়া, বড় রাজনৈতিক দল নির্বাচনে আসছে না, এসব কারণে ভোটার উপস্থিতি কম। নির্বাচন কমিশনের ওপর আস্থা-অনাস্থার বিষয় নয়, পছন্দের প্রার্থী না পাওয়ায় এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে নির্বাচনে ভোটারের উপস্থিতি কম হয়েছে। তবে, কত শতাংশ ভোটার উপস্থিত হলে সন্তোষজনক হবে, এ বিষয়ে দায়বদ্ধতা নেই।

সোমবার (২০ মে) নির্বাচন কমিশন ভবনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

উপজেলা নির্বাচনে ভোটারদের অংশগ্রহণ কম, বিষয়টিকে চ্যালেঞ্জ মনে করেন কি না? এ প্রশ্নের জবাবে মো. আলমগীর বলেন, ভোট যাতে সুষ্ঠুভাবে হতে পারে, এ জন্য ব্যাপক সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। প্রথম ধাপের নির্বাচনেও তাই করেছি। আগামীকালের নির্বাচনও তেমন হবে। কমিশনের দায়িত্ব নির্বাচন শান্তিপূর্ণ রাখা। নির্বাচন কমিশনের আন্তরিকতার কোনো কমতি নেই। সারাবিশ্বে ভোটারদের ভোটের প্রতি আগ্রহ কমছে। বিভিন্ন কারণে ভোটাররা অংশ নিতে চায় না। ভালো প্রার্থীরা নির্বাচনে অংশ না নিলেও অনেক সময় ভোটাররা ভোট দিতে যায় না।

তিনি বলেন, বিএনপি ভোট বর্জনের জন্য লিফলেট বিতরণ করছে, এটা তাদের রাজনৈতিক অধিকার। তবে, কোনো সহিংসতা করলে সেক্ষেত্রে রিটার্নিং কর্মকর্তা ব্যবস্থা নেবে। কমিশনের প্রতি আস্থা নেই… এটা ঠিক নয়। কমিশন সবসময় শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষভাবে কাজ করে। কারও প্রতি কমিশনের আলাদা কোনো পক্ষপাতিত্ব নেই।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here