ব্রেকিং নিউজ

ওয়াশিংটনে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও সন্ত্রাসীদের শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ

বাংলা প্রেস, নিউ ইয়র্ক থেকে :: বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ও সাম্প্রতি আটক দৈনিক সংগ্রাম পত্রিকার সম্পাদক আবুল আসাদের মুক্তির দাবিতে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে ক্যাপিটাল হিলের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন ফরম ফর ডেমোক্রেটিক রাইট ইন বাংলাদেশ (এফডিআরবি) নামক বাংলাদেশি একটি সংগঠনের নেতাকর্মিরা। একই সাথে তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিপি নুরুল হক নুরু উপর হামলাসহ ছাত্রলীগের নির্যাতনের প্রতিবাদও জানিয়েছেন। স্থানীয় সময় গত বুধবার ওয়াশিংটনে ক্যাপিটাল হিলের সামনে এ বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।
বিক্ষোভ সমাবেশে উপস্থিত বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে অনির্বাচিত ও অগণতান্ত্রিক আওয়ামী লীগ সরকার মানুষের মৌলিক অধিকার হরণ করেছে। তারা মানুষের কণ্ঠরোধ করতে এমন কোন গর্হিত কাজ নেই, যা তারা করছে না।
বক্তরা আরও বলেন, সরকার ভিন্নমত দমনে দেশের জ্যৈষ্ঠ সম্পাদক ও দৈনিক সংগ্রামের সম্পাদক আবুল আসাদকে মুক্তিযোদ্ধা মঞ্চের নামধারী আওয়ামী লীগের গোন্ডা বাহিনী তার উপর নিলজ্জভাবে হামলা করে এবং পুলিশ দিয়ে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে।আবুল আসাদের মতো ৭৮ থেকে ৮০ বছর বয়সী একজন সিনিয়র সম্পাদকের উপর এমন আমানবিক হামলা ও গ্রেফতার করে রিমান্ডে নেওয়া স্বাধীন দেশে কোন ভাবেই কাম্য হতে পারে না।
খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি জানিয়ে বক্তারা বলেন, দেশে গণতন্ত্র ব্যবস্থাকে কবর রচনা করতেই গণতন্ত্রের মানসকণ্যা বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার করে রেখেছে।তিনি অসুস্থ থাকার পরও, তার সুচিকিৎসা ব্যবস্থা দিচ্ছে না। এমনকি আদালতের উপর হস্তক্ষেপ করে সরকার তার মুক্তি বাধাগ্রস্থ করছে। নুন্যতম মত প্রকাশের স্বাধীনতা নেই বলেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিপি নুরুর উপর একের পর এক হামলা করছে সরকারের মদদপুষ্ঠ ছাত্রলীগ করছে বলেও অভিযোগ করেন বক্তরা।
বলেন, যারা নুরুর উপর হামলা করেছে, তাদের বিচার না করে, উল্টো নুরুর বিরুদ্ধে মামলা করতে সরকার পৃষ্ঠপোষকতা করেছে। তারা এমন কোন হীন কাজ নেই, যা তারা করছে না। এসময় তারা সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রলীগের অপরাজনীতি বন্ধের আহ্বান জানান।
বিক্ষোভ সমাবেশে শতাধিক প্রবাসী বাংলাদেশী অংশ গ্রহণ করেন। তারা সরকার বিরোধী প্লেকার্ড নিয়ে সরকারের নিপীড়ন মূলক কার্মকান্ডের বিষয়গুলো তুলে ধরেন প্রতিবাদ করেন।
অনুষ্ঠানে তারা খালেদাজিয়া,আবুল আসাদের মুক্তিসহ বিভিন্ন বিষয়ে স্লোগান দিতে থাকে।বিক্ষোভে বক্তব্য রাখেন,ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল মান্নান,আইটি বিশেষজ্ঞ মোঃজামান,জিয়াউল ইসলাম শামীম, আনিসুর রহমান, বোরহান,আবু বকর সিদ্দিক,ড. হাসমত শিকদার,বিশিষ্ট ব্যাবসায়ীদে আব্দুর রব ও মাহমুদুল কাদির তফাদার প্রমুখ।
Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব আমেরিকার সভাপতি সালেহ আহমেদ, সম্পাদক দিলশাদ চৌধুরী ছুটি

বাংলা প্রেস, নিউ ইয়র্ক থেকে :: যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যের পুরনো সংগঠন বাংলাদেশ ...