ডেস্ক রিপোর্ট::  ২৬ সেঞ্চুরি, ৩৭ ফিফটির সঙ্গে ৮ হাজার ৭৩৬ রান। এক যুগে পেয়েছেন এক ডজন ওপেনিং সঙ্গী। তবে ডেভিড ওয়ার্নার ছিলেন অটল অবিচল। অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটে প্রায় এক যুগ ধরে অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে ছিলেন তিনি। পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে ইতি টানলেন নিজের বর্ণাঢ্য টেস্ট ক্যারিয়ারের।

নিজের বিদায়ী ইনিংসেও ওয়ার্নার ছিলেন উজ্জ্বল। করেছেন অর্ধশতক। পাকিস্তানের ছোট লক্ষ্যের সামনে প্রথম ওভারেই দল উইকেট হারালেও বিপদ বাড়তে দেননি ওয়ার্নার। স্বভাবসুলভ ভঙ্গিতে কিছুটা আগ্রাসী ইনিংস খেললেও ছিল পরিপক্বতার ছাপ।

আর এমন এক ক্যারিয়ারের শেষে বিপক্ষ দল থেকেও সম্মান পেয়েছেন ওয়ার্নার। ম্যাচের শেষে পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে পাকিস্তানের অধিনায়ক শান মাসুদ ডেকে নেন ডেভিড ওয়ার্নারকে। সঙ্গে তুলে দেন বাবর আজমের জার্সি। যেখানে স্বাক্ষর করেছেন পাকিস্তান দলের সব সদস্য।

জার্সি তুলে দিতে গিয়ে ওয়ার্নারকে ধন্যবাদও জানান শান মাসুদ। শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, ‘ধন্যবাদ তোমাকে। আমরা ভাবছিলাম পুরো দল তোমাকে বাবর আজমের জার্সি দেবো, এটা সৌজন্যতার স্মারক হিসেবে। তোমার জন্য শুভকামনা রইলো।’

উপহার দিতে কার্পণ্য করতে দ্বিধা করেননি ডেভিড ওয়ার্নার নিজেও। ক্যারিয়ারের শেষ টেস্টে আউট হয়ে ফেরার পথে নিজের গ্লাভস ও হেলমেট ওয়ার্নার তুলে দিয়েছেন এক খুদে ভক্তের হাতে। সেই ক্ষুদে ভক্তের উচ্ছ্বাসটাও চোখে পড়েছে সবারই।

ওয়ার্নারের এমন ফিফটি আর বিদায়ের দিনে অস্ট্রেলিয়াও পেয়েছে তাদের কাঙ্ক্ষিত জয়। সিডনি টেস্টের চতুর্থ দিনে এসে ওয়ার্নারের পাশাপাশি অর্ধশতকের দেখা পেয়েছেন মার্নাস ল্যাবুশেনও। অপরাজিত ৬২ রান করে দলকে জিতিয়েই মাঠ ছেড়েছেন তিনি। ১৩০ রানের লক্ষ্য নিয়ে অস্ট্রেলিয়া জিতেছে ৮ উইকেটে। ১৯৯৫ সালের পর থেকে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে তাদের জয় না পাওয়ার আক্ষেপটা আরও খানিক চওড়া হয়েছে এদিন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here