ডেস্ক রিপোর্ট:: শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল জানিয়েছেন, গতানুগতিক পরীক্ষা পদ্ধতির বাইরে গিয়ে বিকল্প পদ্ধতিতে মূল্যায়নের জন্য তৈরি হচ্ছে বিশেষায়িত বডি ‘ন্যাশনাল অ্যাসেসমেন্ট অ্যান্ড অ্যাক্সামিনেশন সেন্টার’। তিনি বলেছেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ঝুঁকিতে ফেলে কোনো পাবলিক পরীক্ষা নেওয়া হবে না।

একটি বেসরকারি সংবাদভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ কথা জানান তিনি। এসময় পরীক্ষার্থীদের পাঠদান ও মূল্যায়নে বিকল্প পদ্ধতি প্রণয়নের আভাসও দেন শিক্ষা উপমন্ত্রী।

মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, ‘বিনা পাঠে পরীক্ষা চাপিয়ে দেওয়ার চিন্তা নেই। আমরা বিশেষভাবে ব্যাপারটি দেখছি ও ভাবছি। কমিটিও গঠন করা হচ্ছে।’ এসময় তিনি বিকল্প পদ্ধতিতে মূল্যায়নের আভাস দিলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষা-কার্যক্রম ও পাঠদানে প্রস্তুতি নিতেও সবাইকে পরামর্শ দেন।

 

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here