ডেস্ক রিপোর্টঃঃ  উর্বশীর যে ঋষভের প্রতি দুর্বলতা আছে, সেটা এখন ‘ওপেন সিক্রেট’। পান্তের প্রতি ভালোবাসার কথা বারবারই প্রকাশ করেছেন উর্বশী। তার খেলা দেখতে মাঠেও পৌঁছে গিয়েছেন একাধিকবার। যদিও পুরো বিষয়টা এড়িয়ে যাওয়াই পছন্দ করেন ঋষভ পান্ত। কিন্তু তারকার দুর্ঘটনার পর ফের চর্চায় তাদের ‘কমপ্লিকেটেড’ সম্পর্ক। ঋষভের দুর্ঘটনার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় একাধিকবার নাম না করে তাকে উদ্দেশ্য করে পোস্ট করেছেন বলি সুন্দরী।

বৃহস্পতিবারই তিনি নতুন একটি ছবি পোস্ট করেছেন। উর্বশী নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে সেই হাসপাতালের বিল্ডিংয়ের একটি সাদাকালো ছবি পোস্ট করেন, যেখানে ভর্তি রয়েছেন পান্ত। ছবির ক্যাপশনে কিছু না লিখলেও লোকেশন হিসেবে মুম্বাই শহরকে ট্যাগ করেন নায়িকা। তাতেই নেটদুনিয়ায় জল্পনা উর্বশী হয়তো পান্ত যে হাসপাতালে ভর্তি আছেন, সেই হাসপাতালের আশেপাশে ঘোরাফেরা করছেন কিন্তু লোকলজ্জার ভয়ে কাছে যেতে পারছেন না।

যদিও হাসপাতালের আশেপাশে উর্বশীকে দেখা যাওয়ার কোনো খবর নেই বা কোনো ছবিও প্রকাশ্যে আসেনি। মুম্বাইয়ের কোকিলাবেন ধীরুভাই আম্বানি হাসপাতালের ওই ছবিটি অন্য কারো তোলাও হতে পারে। তবে ছবিটি যারই তোলা হোক, সেটি পোস্ট করে বলি অভিনেত্রী আবারও বুঝিয়ে দিলেন, পান্তের চিন্তায় তিনি আজও ব্যাকুল। আর পাঁচজন অনুরাগীর মতো তিনিও ক্রিকেটারের সুস্থতা কামনা করছেন। হয়তো একটু বেশি করেই।

 

বিসিসিআই সূত্রের খবর, রবীন্দ্র জাদেজার মতোই লিগামেন্ট ছিঁড়ে গিয়েছে ঋষভ পান্তের।প্রাথমিকভাবে মনে করা হয়েছিল, ওষুধ দিলেই সেরে উঠবেন পান্ত। কিন্তু যন্ত্রণা ক্রমশই বাড়তে থাকার কারণে অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হন চিকিৎসকেরা। এয়ার অ্যাম্বুলেন্সের মাধ্যমে তাকে দেরাদুন থেকে মুম্বাই নিয়ে যাওয়া হয়। জানা যায়, কোকিলাবেন আম্বানি হাসপাতালেই অস্ত্রোপচার হতে পারে ভারতীয় ক্রিকেটারের। তবে প্রয়োজনে পান্তকে বিদেশে পাঠিয়ে চিকিৎসা করার রাস্তাও খোলা রেখেছে বোর্ড।

উল্লেখ্য, গত ৩০ ডিসেম্বর দিল্লি থেকে উত্তরাখণ্ডে ফেরার পথে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে ঋষভ পান্তের গাড়ি। স্থানীয় সূত্রের খবর, উত্তরাখণ্ডের রুরকির কাছে রাস্তার ডিভাইডারে ধাক্কা মারে ক্রিকেটারের মার্সিডিজ। কার্যত দুমড়ে-মুচড়ে যায় গাড়িটি এবং আগুন ধরে যায়।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here