ফরহাদ খাদেম, ইবি সংবাদদাতা ::
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) লালন শাহ হলের গণরুমে আল-ফিক্হ এন্ড লিগ্যাল স্টাডিজ বিভাগের ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের অপু নামের এক শিক্ষার্থীকে র‍্যাগিংয়ের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় সত্যতা পেয়েছে তদন্ত কমিটি। এতে জড়িত পাঁচ শিক্ষার্থীর মধ্যে তিন শিক্ষার্থীকে এক বছরের জন্য (২ সেমিস্টার) বহিষ্কার ও অপর দুই শিক্ষার্থীকে সতর্ক করা হয়েছে। গত ২৯ মে ছাত্র শৃঙ্খলা কমিটির ১৩ তম সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
রোববার (০২ জুন) ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এইচ এম আলী হাসান স্বাক্ষরিত পৃথক পৃথক পাঁচটি অফিস আদেশে এ তথ্য জানানো হয়।
বহিষ্কৃতরা হলেন, শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের মুদ্দাসসির খান কাফি এবং ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের একই শিক্ষাবর্ষের উজ্জল হোসেন ও সাগর প্রামাণিক। তাদের বিরুদ্ধে কেন চূড়ান্ত শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না সে মর্মে আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে আত্মপক্ষ সমর্থনপুর্বক রেজিস্ট্রার বরাবর লিখিত জবাব দিতে বলা হয়েছে।
এদিকে অর্থনীতি বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী এবং শাখা ছাত্রলীগের শিক্ষা ও পাঠচক্র সম্পাদক নাসিম আহমেদ মাসুম ও ইনফরমেশন এন্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজি বিভাগের ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের মিসনো আল আসনাওয়ীকে সতর্ক করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এ ধরনের কর্মকাণ্ডে সংযুক্ত হলে তাদেরকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে।
উল্লেখ্য, গত ০৭ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের লালন শাহ হলের গণরুমে (১৩৬ নম্বর কক্ষ) রাত ১২টা থেকে ভোর পর্যন্ত র‌্যাগিংয়ের ঘটনা ঘটে। এতে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীকে রাতভর র‌্যাগিং, নগ্ন করে রড দিয়ে মারধর, পর্নোগ্রাফি দেখানো ও টেবিলের ওপর কাকতাড়ুয়া বানিয়ে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। পরে উক্ত ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় ও হল কর্তৃপক্ষ।
Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here