ইতালির বিদায় ঘণ্টা বাজলো

ঢাকা: উরুগুয়ের ডিফেন্ডার দিয়েগো গডিনের একমাত্র গোলে ইতালিকে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিতে হলো। অধিনায়কোচিত পারফরম্যান্সে খেলার ৮২ মিনিটে দলকে গাস্তন রামিরেজের কর্নার কিকে বুলেট গতিতে হেড করে বুফনকে পরাস্ত করেন তিনি। তার একমাত্র গোলেই শেষ হয়ে যায় ইতালির বিশ্বকাপ।

এর আগে ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে ৫৯ মিনিটে অবৈধ ট্যাকল করায় লাল কার্ড পেয়েছেন ক্লাউদিয়ো মারচিশিও। মারচিশিওয়কে হারিয়ে ১০ জনের দল নিয়ে উরুগুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠার লড়াইয়ে ঘাম ঝরাচ্ছে ইতালি।

খেলার ৬৬ মিনিটে কাভানির শট ফিরিয়ে দিয়ে উরুগুয়েকে গোলবঞ্চিত করেন বুফোন।

এরপর ৬৮ মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পায় ইতালি। পিরলোর পাস থেকে ডিবক্সের ভেতরে বল পান ইমমোবাইল, কিন্তু গিমিনেজ দৌড়ে এসে স্লাইড ট্যাকল করে দলকে রক্ষা করেন।

লাল কার্ডের খাড়ায় পড়ে একজন কম নিয়েও গোছালোভাবে উরুগুয়ের আক্রমণ ঢেকাচ্ছে ইতালি। অন্যদিকে ১০ জনের দল পেয়েও গোল দিতে না পারার ব্যর্থতায় হতাশ উরুগুয়ে।

এর আগে গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই মারিও বালোতেল্লিকে বদলিয়ে মার্কো পারোলোকে মাঠে নামান ইতালির কোচ সিজ‍ার প্রানদেল্লি। অন্যদিকে জয়ের জন্য মরিয়া উরুগুয়ের কোচ অস্কার তাভারেজ লডেইরোর বদলি খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে নামান ম্যাক্সি পেরেইরাকে।

খেলার প্রথামার্ধে ৬০ শতাংশ বল পজেশন নিয়ে ইতালি এগিয়ে থাকলেও নিশ্চিত গোলের সুযোগ তৈরি করতে পারেনি আজ্জুরিরা। অন্যদিকে উরুগুয়ে স্ট্রাইকার সুয়ারেজকে সামলাতে বেগ পেতে হয়েছে তাদের।

রক্ষণভাগে ৫ জন খেলোয়াড় নিয়ে শুরু কর‍া ইতালির গোলবার মুখে ৭ মিনিটেই ফ্রিকিক পেয়ে জোরালো শট করেন উরুগুয়ের স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজ। ইতালি গোলরক্ষক বুফোন বলটিতে পাঞ্চ করে দলকে বিপদমুক্ত করেন।

খেলার ১১ মিনিটে বালোতেল্লিকে ফাউল করেন ক্যাকারাস, বিপদজনক স্থানে ফ্রিকিক পায় ইতালি। আন্দ্রেয়া পিরলোর জোরালো শট উরুগুয়ের গোলরক্ষক মুসলেরো ফিরিয়ে দেন।

রক্ষণাত্মক রণকৌশল নিয়ে মাঠে নামলেও খেলার প্রথম ২০ মিনিট পর্যন্ত বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে ইতালি। তবে গোলবার মুখে উরুগুয়ের ৩টি শটের বিপরীতে ইতালির শট মাত্র ১টি।

খেলার ২২ মিনিটে অপ্রয়োজনীয়ভাবে পেরেইরাকে ফাউল করায় ম্যাচের প্রথম হলুদ ‍কার্ড দেখেন ইতালির স্ট্রাইকার মারিও বালোতেল্লি।

২৭ মিনিটে মার্কো ভেরাত্তির পাস থেকে বল পেয়ে বালোতেল্লির ডান পায়ের শট অনেক বাইরে দিয়ে চলে যায়। এ সময় পর্যন্ত ইতালির খেলোয়াড়েরা ৫টি শট নিলেও মাত্র ১টি অনশট হয়েছে। অন্যদিকে উরুগুয়ের ৫টি শটের ৩টি অনশট হয়েছে।

৩৩ মিনিটে লডেইরোর ডিফেন্স ভেদ করা পাস থেকে থেকে ইতালি গোলরক্ষক বুফনের দক্ষতায় গোলবঞ্চিত হয় সুয়ারেজ।

৩৮ মিনিটে মার্টিন ক্যাকারাসে ৩৫ গজ ‍দূর থেকে নেওয়া শট গোলবারের বামপাশ দিয়ে লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

অভ্যন্তরীণ কোন্দলে অনিশ্চয়তার মুখে ইংল্যান্ড-দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ

ডেস্ক রিপোর্ট::ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের দক্ষিণ আফ্রিকা সফর নিয়ে দেখা দিয়েছে অনিশ্চয়তা। দক্ষিণ ...