ইউক্রেন-রাশিয়াকে নিয়ে ফের বৈঠকে বসতে চায় তুরস্ক

ডেস্ক রিপোর্টঃঃ  মস্কো-কিয়েভের মধ্যে চলমান যুদ্ধ অবসানে জাতিসংঘ, ইউক্রেন ও রাশিয়াকে নিয়ে ফের বৈঠকে বসতে চায় তুরস্ক। এর আগেও এ বিষয়ে মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা পালন করেছে এই দেশটি।

মূলত রাশিয়া-ইউক্রেন সংকটের কারণে এখনও অবরুদ্ধ অবস্থায় রয়েছে কৃষ্ণসাগর। হাজার হাজার টন খাদ্যশস্য নিয়ে সেখানে আটকে রয়েছে বহু জাহাজ। মূলত দু’টি কারণে জাহাজগুলো কৃষ্ণসাগর দিয়ে যেতে পারছে না। প্রথমত, রাশিয়ার অবরোধ এবং দ্বিতীয়ত, ইউক্রেনের মাইন।

রাশিয়ার দাবি, সমুদ্রে মাইন ছড়িয়ে রেখেছে ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী। সে কারণেই তারা ওই রাস্তায় অবরোধ তৈরি করেছে। কিন্তু এর ফলে খাদ্য সংকট শুরু হয়েছে আফ্রিকা-সহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে। আর কীভাবে এই সমস্যার সমাধান করা যায়, তা নিয়েই ফের বৈঠকে বসতে চায় তুরস্ক।

এর আগে ইউক্রেন ও রাশিয়ার প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেছিল তুরস্ক। কিন্তু উচ্চপর্যায়ের সেই বৈঠকে কোনো সমাধান বের হয়ে আসেনি। আর তাই এবার জাতিসংঘকেও সঙ্গে রাখতে চাইছে প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের এই দেশটি।

কৃষ্ণসাগরে অবস্থিত ইউক্রেনের বন্দর থেকে খাদ্যশস্য কীভাবে বাইরে বের করে আনা যায়, তা নিয়ে জাতিসংঘ একটি পরিকল্পনা তৈরি করেছে বলে তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়ছেন। সেই পরিকল্পনা নিয়েই ইউক্রেন এবং রাশিয়ার প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে রাশিয়ার সঙ্গে শান্তি আলোচনায় ইউক্রেনের মূল প্রতিনিধি ডেভিড আরাখামিয়া। বুধবার তিনি অভিযোগ করেছেন, পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ব্যবসা করছে রাশিয়ার একাধিক সংস্থা এবং ব্যক্তি। তারা জর্জিয়ার ভুয়া পরিচয় ব্যবহার করছেন।

আরাখামিয়ার দাবি, রুশ ওই সংস্থা বা ব্যক্তিরা প্রথমে ইন্টারনেটে একটি নতুন কোম্পানি তৈরি করছে। তারপর জর্জিয়ার ভুয়া পরিচয়পত্র ব্যবহার করে জর্জিয়াতেই ব্যাংক অ্যাকাউন্ট তৈরি করছে।

আর সেই অ্যাকাউন্টের মাধ্যমেই তারা নতুন করে ব্যবসা শুরু করছে। ওয়াশিংটনকে এ বিষয়ে সমস্ত তথ্যপ্রমাণ তিনি দিতে পারবেন বলেও দাবি তার।

সূত্র: ডয়চে ভেলে

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here