রফিকুল ইসলাম ফুলাল দিনাজপুর প্রতিনিধি :: দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার নির্বাহী অফিসার ওয়াহিদা খানম ও তার পিতা অমর আলীকে সরকারী বাস ভবনে ঢুকে হাতুডি দিয়ে পিটিয়ে ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারী ভাবে কুপিয়ে গুরুত্বর যখম করার ঘটনায় আজ বিকেল ৫টা ১০ মিনিটি দিনাজপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আমলী আদালত-৭ এ দুই আসামী কে হাজির করা হয়।

সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শিশির কুমার বসুর আদালতে উভয় পক্ষের শুনানি হয়। আদালতে ১০ দিনের রিমান্ড চাইলে ৭ দিনের রিমান্ড মজ্ঞুর করে আদালত। ইতিপর্বে মামলাটি গয়েন্দা সংস্থা ডিবির কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি ওসি ইমাম জাফর। মামলার বাদি ইউএনওর বড় ভাই শেখ আরিফ হোসেন।

আসামীরা হলেন, রং মিস্ত্রী নবীরুল ইসলাম ও সান্টু কুমার। এই দুই আসামীকে ৭ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। প্রধান আসামী আসাদুল হক রংপুর মেডিকেলে চিকিৎসাধিন থাকায় তাকে আদালতে হাজির করা যায়নি বলে দিনাজপুর ডিবি অফিস সুত্রে জানা গেছে।

উল্লেখ্য,বুধবার রাত আনুমানিক আড়াইটার সময় দুইজন দূর্বৃত্ত উপজেলা পরিষদের নির্বাহী অফিসারের আবাসিক ভবনে (শাপলা ভবন) ঢুকে নির্বাহী অফিসার ওয়াহিদা খানমকে হাতুডি দিয়ে ও ধারালো অস্ত্রদিয়ে কোপাতে শুরু করে। এ সময় তার চিৎকারে তার সঙ্গে থাকা পিতা ছুটে এসে মেয়েকে বাঁচানোর চেষ্টা করলে দূর্বৃত্তরা তাকেও যখম করে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here