ব্রেকিং নিউজ

আম্পান মোকাবেলায় পটুয়াখালীতে প্রশাসনের ব্যাপক প্রস্তুতি

স্টাফ রিপোর্টার :: পটুয়াখালী জেলায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ ৭৫০টি সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরের মধ্যে কয়েকটি দূরবর্তী চর ও দ্বীপের প্রায় প্রায় আড়াই হাজার মানুষকে নিকটবর্তী সাইক্লোন শেল্টারে নেয়া হয়েছে। প্রশাসন জানিয়েছে বিকাল থেকে পুরোদমে লোকজনকে সাইক্লোন শেল্টারে নেয়ার কাজ শুরু হয়েছে।

জেলার সর্বত্র দিনভর গুমোট আবহাওয়া বিরাজ করেছে। নদ-নদীর পানি স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে কিছুটা বেড়েছে। তবে তা আশঙ্কাজনক নয়। নদ-নদী ও সাগর সম্পূর্ণ শান্ত ছিল। সাগরে কোথাও জেলে নৌকা কিংবা ট্রলার নেই। সেগুলো উপকূলে নিরাপদে ফিরে এসেছে। জরুরি পরিস্থিতি মোকাবেলায় জেলা ও উপজেলা প্রশাসন বৈঠক করেছে। জেলা ছাড়াও উপজেলা পর্যায়ে কন্ট্রোলরূম খোলা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও দায়িত্বপ্রাপ্ত জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মোঃ মাহাবুবুর রহমান জানান, সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সময়ে বিভিন্ন সাইক্লোন শেল্টারে ২ হাজার ২১৩ জন মানুষকে নেয়া হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় আম্পানে দুর্গতদের জন্য ২শ মেট্রিকটন চাল, নগদ ৩ লাখ টাকা, শিশু খাদ্য ক্রয়ের জন্য ২ লাখ টাকা, গোখাদ্য ক্রয়ের জন্য ২ লাখ টাকা ও শুকনা ৩ হাজার প্যাকেট খাবার মওজুদ রাখা হয়েছে।

এদিকে সকাল থেকেই গলাচিপা ও দশমিনাসহ পটুয়াখালী জেলার বিভিন্ন স্থানে লোকজনকে সচেতন করতে রেডক্রিসেন্টের ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচীর স্বেচ্ছাসেবকদের উদ্যোগে মাইকিং করে সামাজিক দূরত্ব মেনে নিরাপদে আশ্রয় নিতে প্রচারণা চালানো হচ্ছে। এজন্য প্রায় সাত হাজার স্বেচ্ছাসেবক কাজ করছে। গলাচিপা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক টিম লিডার আবু হেনা মোঃ শোয়েব আশিস জানান, উপজেলায় ২০২৫ জন স্বেচ্ছাসেবক কাজ করছে। এরইমধ্যে প্রত্যন্ত দ্বীপ এলাকার লোকজনকে নিরাপদ আশ্রয়ে নেয়া হয়েছে।

এদিকে, পটুয়াখালী জেলায় ৩২৫টি মেডিক্যাল টিম প্রস্তুত রাখা হয়েছে। চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের মেডিক্যাল টিমে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে।

 

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

সন্তান হত্যার বিচারের দাবিতে রাস্তায় মা

জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: লক্ষ্মীপুরে মো. জাবেদ হোসেন হত্যার বিচারের ...