বন্ধ হয়ে যাওয়া পদ্মা সেতুর কাজ চালু করাই প্রথম কাজ বলে মন্তব্য করেছেন সদ্য দায়িত্বপ্রাপ্ত  যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, শুধু ভাল কথা বলেই চলবে না, ভাল কাজও করতে হবে। কারণ হাতে সময় খুবই কম। সোমবার নতুন মন্ত্রিসভায় রদবদলের পর বিকালে সংসদ ভবনে এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি একথা জানান।

শেখ হাসিনার সরকারের মন্ত্রী হিসেবে গত ২৮ ডিসেম্বর শপথ নেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাদের। এর পাঁচ দিন পর তিনি দপ্তর পেলেন যোগাযোগ মন্ত্রণালয়।

কাদের বলেন, “পদ্মা সেতুর বাস্তবায়ন অনেক দূরের স্বপ্ন। কাজ শুরু কিংবা শেষ করা- কোনো ব্যাপারে আমি দিনক্ষণ দেবো না। টার্গেট হচ্ছে শুরু করা। কাজেই প্রমাণ করবো।”

অগ্রাধিকার দিয়ে আপাতত শুরু করাটাই হবে প্রধান কাজ, বলেন তিনি।

দেশের সর্ববৃহৎ নির্মাণ প্রকল্প পদ্মা সেতুর মূল অর্থ যোগানদাতা বিশ্বব্যাংক দুর্নীতির অভিযোগ তুলে তাদের অর্থায়ন স্থগিত করেছে, যদিও সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, কোনো দুর্নীতি হয়নি।

হাসিনার মন্ত্রিসভায় প্রায় তিন বছর যোগাযোগমন্ত্রীর দায়িত্ব পালনের পর সৈয়দ আবুল হোসেন মন্ত্রিসভার রদবদলে পেয়েছেন তথ্য যোগাযোগ ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়।

বিরোধী দলের অভিযোগ, আবুল হোসেনের দুর্নীতির কারণেই পদ্মা সেতুর অর্থায়ন স্থগিত হয়েছে।

পদ্মা সেতু নিয়ে বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে বিরোধের বিষয়ে কিছু বলতে অনীহা প্রকাশ করে নতুন মন্ত্রী কাদের বলেন, “মন্ত্রণালয়ে বসার পর বুঝে-শুনে এ বিষয়ে কথা বলবো।”

আওয়ামী লীগের গত সরকারে যুব, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালনকারী কাদের এবার শুরুতে মন্ত্রিসভায় স্থান পাননি, প্রায় তিন বছর পর এসে যুক্ত হলেন।

“নতুন করে আবার যাত্রা শুরু হলো। আমি অসম্ভবকে ভালোবাসি, চ্যালেঞ্জকে উপভোগ করি,” বলেন কাদের। পদ্মা সেতুর পাশাপাশি বেহাল মহাসড়ক নিয়েও ব্যাপক সমালোচিত ছিলেন ওবায়দুল কাদেরের পূর্বসূরি আবুল হোসেন।

সরকারের বাকি দুই বছরে জনদুর্ভোগ লাঘবে সততা, নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করবেন বলে জানান কাদের।

তিনি বলেন, “বড় বড় প্রতিশ্র“তি না দিয়ে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে কাজ করবো। জনদুর্ভোগ কমিয়ে জনগণকে স্বস্তি দেওয়াটাই প্রধান কাজ”।

মন্ত্রিসভার পুনর্বিন্যাসে সরকারের কাজে গতিসঞ্চার হবে বলে মনে করেন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি কাদের।

বলেন তিনি,মানুষ ভালো কথা চায় না, ভালো কাজ চায়। দেশের রাজনীতিক, সুশীল সমাজসহ সবাই এত ভালো কথা বলেছেন যে এর স্টক হয়তো ফুরিয়ে গেছে। কিন্তু কত ভালো কথা বলেছি, তা বড় কথা নয়, কাজে ভালো দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে হবে।

ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডট কম/ঢাকা

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here