মারুফ সরকার, ঢাকা ::

বাংলাদেশের বুকে সবচেয়ে বড় অবকাঠামোর নাম পদ্মা সেতু। দীর্ঘ অপেক্ষার প্রহর শেষে শনিবার (২৫ জুন) দুপুর ১২টায় পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই সাফল্যের সাক্ষী হতে নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের পাশাপাশি শোবিজের অনেক তারকাই হাজির হন। এখন থেকে পদ্মা পার হওয়ার দুর্ভোগ পোহাতে হবে না। দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ সারাজীবন পদ্মা সেতুর সুবিধা ভোগ করবেন।

এই তালিকায় আছেন দেশের নামকরা সব তারকারাও। অনেকেরই জন্মস্থান দক্ষিণাঞ্চলে। যারা দীর্ঘপথ পাড়ি দিয়ে মাঝে মাঝে যেতেন গ্রামের বাড়িতে। নানা সমস্যা থাকায় তাই অনেক সময় মন চাইলেও যেতে পারতেন না সময়ে অসময়ে। পদ্মা সেতু হওয়ায় এবার সেই দুঃখ ঘুচে গেছে তাদের। সেই তারকাদের মধ্যে বরিশালে জন্ম হয়েছে চিত্রনায়ক জায়েদ খানের।

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পেয়েছেন তিনিও। তবে অনুষ্ঠানে যাওয়ার আগেই তিনি নিজের অনুভূতি প্রকাশ করেছেন। পদ্মা সেতুর নিচে তোলা একটি ছবি শেয়ার দিয়ে ফেসবুকে ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘আমার টাকায় আমার পদ্মা সেতু। আনন্দিত এবং গর্বিত। এমন ঐতিহাসিক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে একজন আমন্ত্রিত অতিথি হতে পেরে নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছি। ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।’

প্রসঙ্গত, বিশ্বের খরস্রোতা নদীর তালিকায় আমাজনের পরেই পদ্মার অবস্থান। এমন খরস্রোতা নদীর ওপর বিশ্বে সেতু হয়েছে মাত্র একটি। তাই সেতুকে টেকসই করতে নির্মাণের সময় বিশেষ প্রযুক্তির পাশাপাশি উচ্চমানের সামগ্রী ব্যবহার করা হয়েছে।

পদ্মা সেতুর পিলার সংখ্যা ৪২ আর স্প্যান ৪১টি। খুঁটির নিচে সর্বোচ্চ ১২২ মিটার গভীরে স্টিলের পাইল বসানো হয়। অর্থাৎ প্রায় ৪০ তলা ভবনের উচ্চতার গভীরে পাইল নিয়ে যেতে হয়েছে। বিশ্বে এখন পর্যন্ত কোনো সেতুর জন্য এত গভীর পাইলিং হয়নি। এছাড়াও পদ্মা সেতুতে রয়েছে অত্যাধুনিক সিসি ক্যামেরা। সাধারণ আলোক সুবিধার পাশাপাশি সেতুতে আলোকসজ্জা ও সৌন্দর্য বর্ধনে রয়েছে আর্কিটেকচার লাইটিং।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here