ডেস্ক রিপোর্ট:: নোয়াখালীর বসুরহাটের মেয়র আবুদল কাদের মির্জাকে প্রধান আসামি করে নিহত আলা উদ্দিনের ভাই এমদাদ হোসেন রোববার সকালে নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বিচারক এসএম মোসলেহ উদ্দিন মিজানের ২/৪ আমলি আদালতে মামলার আবেদন করেছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বিকেল ৩টায় আদালত আদেশ দেয়ার কথা রয়েছে বলে জানিয়েছেন বাদী পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট হারুনুর রশিদ হাওলদার।

মামলার আবেদনে মেয়র আব্দুল কাদের মির্জা ছাড়াও তার ছোট ভাই শাহাদত হোসেন, ছেলে তাসিক মির্জাসহ ১৬৫ জন এবং অজ্ঞাত আরো ৫০/৬০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে।

অন্যদিকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খিজির হায়াত খানকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় তার স্ত্রী আরজুমান পারভীন মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, কোম্পানীগঞ্জ আ’লীগের বিবদমান কাদের মির্জা ও বাদল গ্রুপের সংঘের্ষে গত ৯ মার্চ রাতে সিএনজিচালক আলা উদ্দিনের মৃত্যুর পর তার ভাই এমদাদ হোসেন বাদি হয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানায় মামলা করতে যান। কিন্তু বাদীর অভিযোগ পুলিশ সেই মামলা নেয়নি।

অন্যদিকে গত ৮ মার্চ বসুরহাট রূপালী চত্বরে আওয়ামী লীগের অফিস উদ্বোধন করতে গেলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা খিজির হায়াত খানকে লাঞ্ছিত করা হয়। খিজির হায়াত খানের অভিযোগ, কাদের মির্জার নেতৃত্বে তার অনুসারীরা এই হামলা চালিয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here