আজ বিশ্বব্যাপি পালিত হচ্ছে ১০ম পানি, স্যানিটেশন ও হাইজিন মানবাধিকার বার্ষিকী

স্টাফ রিপোর্টার :: আজ ২৮ জুলাই বিশ্বব্যাপি পালিত হচ্ছে ১০ম পানি, স্যানিটেশন ও হাইজিন মানবাধিকার বার্ষিকী। ২০১০ সালের আজকের এ দিনে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ পানি, স্যানিটেশন ও হাইজিনকে মানবাধিকার হিসেবে স্বীকৃতি দেয়।

এ আলোকে গত ১০ বছরে সারা বিশ্বে বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়িত হয়েছে এবং সহশ্রাব্দ উন্নয়নসহ টেকসই উন্নয়ন লক্ষমাত্রা যে লক্ষ্য এবং অঙ্গীকার গুলো মানবাধিকার হিসাবে গন্য করা হয়েছে। যদিও বিশ্বে এখনও আড়াইশ কোটি মানুষ পানি ও স্যানিটেশন সুবিধার বাহিরে রযেছে। বিশেষ করে গরীব দেশের গরীর জনগোষ্টি এই পানি স্যানিটেশনের সুবিধা বঞ্চিত। এ প্রেক্ষিতে সরকার, বেসরকারি সংগঠন, আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান, গবেষণা প্রতিষ্ঠান, মিডয়া সবাই একসাথে কাজ করার ফলে বিশ্ব আজ অনেকদূর পানি, স্যানিটেশন ও হাইজিন কাভারেজে এসেছে। সেই সাথে সাথে যৌথ পরিবিক্ষণ কর্মসূচীর রিপোর্টের তথ্য অনুযায়ি বাংলাদেশে বর্তমানে ৫৬ শতাংশ পানি ও ৬৭ শতাংশ মানুষ উন্নত স্যানিটেশন সুবিধা পাচ্ছে।

বর্তমানে বিশেষ করে বাংলাদেশে বিভিন্ন সংগঠনের সাথে সাথে বেসরকারি সংস্থা ডরপ ২০১৩ সালে জাতিসংঘের ওয়ার্ল্ড ওয়াটার এসেসমেন্ট প্রোগ্রাম ইউনিট থেকে ‘ওয়াটার ফর লাইফ’বেস্ট প্রাকটিসেস এওয়ার্ড লাভ করে। তারই ধারাবাহিকতায় ডরপ বঞ্চিত জণগোষ্টির পানি, স্যানিটেশন ও হাইজিন অধিকার বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছে।

এ উপলক্ষ্যে ডরপ আজ মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) লক্ষ্মীপুর জেলার রামগতি পৌরসভার আলেকজান্ডার বাজারে দীর্ঘ দিন ধরে পরিত্যক্ত পাবলিক টয়লেটটি সংস্কার করে মানুষের ব্যবহার উপযুগি করে তোলে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজ করে। যা প্রবেশগম্যতা, প্রাপ্যতা, গুণগতমান, সক্ষমতার বিচারে জাতিসংঘ পানি, স্যানিটেশনের ক্ষেত্রে যেই অধিকারের কথা চিহ্নিত করেছে তা পুরোপুরি তা এখানে বাস্তবায়ন হলো।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন রামগতি পৌরসভার মেয়র এম মেজবাহ উদ্দিন। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পানি ব্যবস্থাপনা নাগরিক কমিটর সভাপতি আজিজুল ইসলাম, ডরপ এর পানিই জীবন প্রকল্পের সমন্বয়কারী আমির খসরু, স্বাস্থ্য, স্যানিটেশন ও পানি সরবরাহ বিষয়ক অতিরিক্ত স্থায়ী কমিটির সভাপতি গীতা রানী দাস, কাউন্সিলরগন, পানি ব্যবস্থাপনা নাগরিক কমিটির সদস্য, আলেকজান্ডার বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সদস্য, স্কুল শিক্ষক, বাস ও সিএনজি মালিক সমিতির সদস্য টয়লেট পরিচালনাকারী সাদ্দাম হোসনসহ সর্ব স্তরের জনসাধরণ।

প্রধান অতিথির বক্তব্য রামগতি পৌরসভার মেয়র এম মেজবাহ উদ্দিন বলেন, আজ জাতিসংঘের ১০ম পানি, স্যানিটেশন ও হাইজিন মানবাধিকার বার্ষিকী উপলক্ষে নতুন করে সংস্কারকৃত টয়লেটটি উদ্বোধন করতে পেরে আমি খুব খুশি। বাজারেমধ্যে জনসাধরণের ব্যবহারের জন্য একটি টয়লেটের গুরুত্ব অনেক। বাজারে আসা মহিলা পুরুষ, পথচারী, ঢাকা চট্টগ্রামের যাত্রীসহ মানুষ যাতে আরামে এবং স্বাচন্দে ব্যবহার করতে পারে সেইভাবে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হব। তিনি এই টয়লেটটির আরো উন্নয়ন করবেন বলে মত প্রকাশ করন। টয়লেট পরিচালনাকারীকে প্রতিদিন টয়লেট পরিস্কার রাখার নির্দেশ দেন।

বক্তারা বলেন, বর্তমান মহামারি করোনাভাইরাস সংকটে পানি ও পরিচ্ছন্নতার বিষয়টি গুরুত্ব হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে সেটি এখন সবাই অনুধাবন করতে পারছে। এ বিষয়ে মানুষের অধিকার বাস্তবায়নে সবার মনোনিবেশ আশা করি।

 

 

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ফেসবুকে ধর্মীয় কটূক্তি করায় জবি শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার

অনলাইন ডেস্ক : ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করার অভিযোগে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের ...