আওয়ামীলীগের বার্ধিত সভা: বঞ্চিতদের বিক্ষোভ

 আওয়ামীলীগের বার্ধিত সভা: বঞ্চিতদের বিক্ষোভসৈকত দত্ত, শরীয়তপুর প্রতিনিধি :: শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীকে বিজয়ী করতে বর্ধিত সভা করেছে স্থানীয় আওয়ামীলীগ। এসময় দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত বিদ্রোহী প্রার্থী সমর্থকরা মনোনয়ন পরিবর্তনের দাবীতে রাস্তার দু’ পাশে দাড়িয়ে বিক্ষোভ করে।

জানা যায়, শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগে প্রার্থী হিসেবে উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র আব্দুল মান্নান হাওলাদারকে মেয়র পদে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।

দলীয় প্রার্থীকে বিজয়ী করতে বর্ধিত সভা করেছে স্থানীয় আওয়ামীলীগ। শনিবার উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল হোসেন মোড়ল।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক এমপি। সভায় বঙ্গবন্ধুর সকল সৈনিকরা ঐক্যবদ্ধভাবে নৌকা মার্কার পক্ষে কাজ করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

এদিকে, বর্ধিত সভায় যাওয়ার পথে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বঞ্চিত বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকরা ভেদরগঞ্জ উপজেলার গৈড্যা এলাকায় রাস্তার দু’পাশে দাড়িয়ে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পরির্বতনের দাবী জানান।

উপজেলা আওয়ামীলীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আবুল বাশার চোকাদারকে মনোনয়ন দেয়ার দাবীতে সাংসদ নাহিম রাজ্জাকের গাড়ি আটকে দেয় তার সমর্থক নেতাকর্মীরা। নাহিম রাজ্জাক গাড়ি থেকে নেমে তাদের নিয়ে বর্ধিত সভায় যোগদেন।

উপজেলা আওয়ামীলীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আবুল বাশার চোকদার বলেন, আমার নির্বাচনে অংশ নেয়ার কথা ছিলনা। কিন্তু দলীয় মনোনয়নে তৃণমুল আওয়ামীলীগের মতামত উপেক্ষিত হওয়ায় তৃণমূল আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের চাপে প্রার্থী হতে বাধ্য হয়েছি।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান বেপারী বলেন, আমরা আওয়ামীলীগের লোক। আজীবন নৌকায় ছিলাম নৌকায় থাকতে চাই। এবারের মনোনয়নে তৃণমুলের আকাঙ্খার প্রতিফলন ঘটেনি। তাই নৌকার মাঝি পাল্টানোর দাবীতে আমরা আন্দোলনে নেমেছি।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আ: জাব্বার রাড়ি বলেন, আমরা নৌকা মার্কার পক্ষে নির্বাচন করতে চাই কিন্তু নৌকার মাঝি না পাল্টালে তা সম্ভব হচ্ছে না। এ মনোনয়ন পুর্ণবিবেচনার দাবীতে আজ এতো মানুষ একত্রিত হয়েছেন।

স্থানীয় সাংসদ নাহিম রাজ্জাক এমপি বলেন, আওয়ামীলীগ বড় দল। অনেক মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিল। তাই কারো কারো মধ্যে ক্ষোভ রয়েছে। আলোচনা চলছে দু’ একদিন মধ্যে এগুলো ঠিক হয়ে যাবে। আওয়ামীলীগে কোন বিদ্রোহী প্রার্থী থাকবে না।

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ইনজেকশন দেয়া গরু চিনবেন যেভাবে

ষ্টাফ রিপোর্টার ::ঈদুল আজহার আর মাত্র ক’দিন বাকি। ঈদুল আজহা মূলত মহান ...