ব্রেকিং নিউজ

আইনের দুর্বলতায় যথাযথভাবে কাজ করতে পারছি না : ড.মিজান

ঢাকা : জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের প্রতি মানুষের আস্থা বৃদ্ধি পেলেও আইনের দুর্বলতা এবং পর্যাপ্ত লোকবলের অভাবে যথাযথভাবে কাজ করতে পারছি না বলে মন্তব্য করেছেন কমিশনের চেয়ারম্যান ড.মিজানুর রহমান।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক) আয়োজিত জাতীয় মানবাধিকার কার্যক্রম সম্পর্কিত প্রতিবেদন প্রকাশ এবং আলোচনা সভায় তিনি এই মন্তব্য করেন।

আমাদের সমাজে আইনের শাসন নেই উল্লেখ করে ড.মিজান বলেন, আমরা একটি সুপারিশমূলক প্রতিষ্ঠান। আমরা সরকারের কাছে সুপারিশ করতে পারি। কিন্তু মানা না মানা তাদের কাজ। তবে যে সমাজ আইনের শাসন দ্বারা পরিচালিত সে সমাজে মানবাধিকার কমিশনের সুপারিশকে গুরুত্ব দেয়া উচিত। তাই মানবাধিকার কমিশনের দুর্বলতাগুলো কীভাবে কাটিয়ে উঠা যায় সে বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে সুপারিশ পাঠানো হয়েছে।

কাদের দ্বারা মানবাধিকার বেশি লঙ্ঘন হয় সাংবাদিকদের এমন এক প্রশ্নের জবাবে ড.মিজান বলেন, রাষ্ট্রের আনুকূল্যে থাকা ব্যক্তিদের দ্বারাই বেশি মানবাধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে। সে হতে পারে রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, হতে পারে প্রশাসন বা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কোনো সদস্য।

জাতীয় মানবাধিকার কমিশন এবং পুলিশ মুখোমুখি কী না এমন এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমাদের সঙ্গে পুলিশের কোনো বিরোধ নেই। তবে অপরাধীদেরও যে মানবাধিকার থাকে সেটা অনেকেই বুঝতে চায় না।

সভাপতির বক্তব্যে আইন ও সালিশ কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক ড.সুলতানা কামাল বলেন,  রাজনৈতিক কারণে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন পূর্ণ স্বাধীনতা পাচ্ছে না। সীমিত ক্ষমতা নিয়ে বাংলাদেশের মানবাধিকার কমিশন যে কাজ করছে তা অবশ্যই প্রশংসনীয়।

মানুষ বিচার পায় না বলেই মানবাধিকার কমিশনের প্রতি প্রত্যাশা অনেক বেড়ে গেছে। তাই রাষ্ট্রকে এই কমিশনের প্রতি তার দায়িত্ব পালন করতে হবে বলেও মনে করেন ড.সুলতানা কামাল ।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ytdy

ঘাসফুলের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার :: সোমবার (২৪ জুন) চট্টগ্রাম নগরীর পিটস্টপ রেস্টুরেন্টের হলরুমে বেসরকারি ...