ডেস্ক রিপোর্ট::  এমন কিছু প্রত্যাশিত ছিল। গত দুই বছর ধরেই অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটে অধিনায়কের বেলায় নিয়মিত মুখ ছিলেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটার। ফর্মটাও সঙ্গ দিচ্ছিল তাকে। নতুন অধিনায়ক হিসেবে তার নাম ঘোষণা করতে তাই খুব বেশি ভাবতে হয়নি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার কর্তাদের। খানিক বিরতি নিলেও শেষ পর্যন্ত অ্যালিসা হিলিকেই নিজেদের নারী ক্রিকেট দলের অধিনায়ক করেছে অস্ট্রেলিয়া।

সাম্প্রতিক সময়ে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটে বড় এক নামই হয়ে উঠেছিলেন অ্যালিসা হিলি। স্বামী মিচেল স্টার্ক ক্রিকেট বিশ্বেরই বর্তমান সময়ের সেরা বোলারদের একজন। তার চাচা ইয়ান হিলিও ছিলেন অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা উইকেটরক্ষক।

গতমাসের শুরুতেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন অজি ক্রিকেট কিংবদন্তি মেগ ল্যানিং। সংবাদ সম্মেলন করে নিজের সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়া নারী দলের অধিনায়ক। তার এই অবসর যে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটের একটি অধ্যায়ের পরিসমাপ্তি ঘটাল তা বলার অপেক্ষা রাখে না। অস্ট্রেলিয়ার জার্সি পরে ২৪১ টি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। জিতেছেন ৫ বিশ্বকাপ।

৩৩ বছরের অ্যালিসার এই দায়িত্ব গ্রহণকে তাই একটি নতুন একটি যুগের শুরু হিসেবেই দেখছে ক্রিকেট সংশ্লিষ্টরা। ২৫৫ ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন অ্যালিসা গত দুই বছর ধরেই মেগ ল্যানিংয়ের অনুপস্থিতিতে বিভিন্ন সময় অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন। ২৫৫ ম্যাচে ৫ হাজার ৬৬৮ রান করা অ্যালিসার অধিনায়কত্বের যাত্রা শুরু হবে ডিসেম্বরেই। ২১ তারিখ মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে ভারতের বিপক্ষে টেস্ট খেলবে তার দল।

অ্যালিসাকে অধিনায়ক করার পাশাপাশি নতুন সহ-অধিনায়কের নামও এদিন ঘোষণা করা হয়েছে। সহ-অধিনায়কের পদে আছেন তালিয়া ম্যাকগ্রা। অ্যাডিলেড স্ট্রাইকার্সের অধিনায়ক হয়ে দুবার নারী বিগব্যাশের শিরোপা জিতেছেন এই অলরাউন্ডার। অ্যালিসার পরবর্তী যুগে তালিয়া ম্যাকগ্রাকেই সবচেয়ে উপযুক্ত হিসেবে ভাবা হচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত সেটারই আভাস দিয়ে রাখল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here