আবু হোসাইন সুমন, মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি ::
অবশেষে মোংলায় স্বস্তির বৃষ্টি নেমেছে। টানা প্রায় তিন মাস ধরে চলে আসা প্রচন্ড তাপদাহের মধ্যে হঠাৎ শুক্রবার সন্ধ্যায় নামে এ বৃষ্টি। এতে স্বস্তি দেখা গেছে সাধারণ মানুষের মাঝে। বৃষ্টিতে তাপদাহের অস্বস্তি দূর হয়ে মানুষের দেহ মনে কিছুটা হলেও প্রশান্তি এসেছে। সেই সাথে বৃষ্টিতে খাবার পানি ধরতে দেখা গেছে সুপেয় পানির সংকটে থাকা মানুষজনকে। 
সম্প্রতি আশপাশের উপজেলা, জেলা ও বিভাগীয় শহর-গ্রামে বৃষ্টিপাত হলেও দীর্ঘ কয়েক মাস ধরে বৃষ্টি নেই মোংলায়। এ কারণে পৌরবাসীকে চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে। বৃষ্টির জন্য গত সপ্তাহে দুই দফায় পৌরসভার বাসিন্দা ও মুসল্লীদের নিয়ে হয়েছে বিশেষ ইস্তেগফার নামাজ ও দোয়া।
এদিকে টানা কয়েক মাস বৃষ্টি না হওয়ায় পানীয় জলের সংকটে ছিলেন স্থানীয়রা। প্রচন্ড তাপদাহে পৌরসভার পানি সংরক্ষণের পুকুর দুইটি শুকিয়ে যাওয়ায় খাবার পানির তীব্র সংকট দেখা দেয়। তাতে চরম ভোগান্তিতে পড়েন পৌরসভার প্রায় দুই লাখ বাসিন্দা।
পৌর শহরের সিঙ্গাপুর মার্কেটের চায়ের দোকানী মোঃ ইউনুস, গ্যাস ব্যবসায়ী মোঃ হোসেন ও তেল ব্যবসায়ী সফিকুল ইসলাম বলেন, দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হলেও কয়েক মাস ধরে আমাদের এখানে কোন বৃষ্টি নেই। লবণ অধ্যুষিত এ এলাকায় খাবার পানির উৎস বলতে শুধু বৃষ্টির পানি। এখানে টিউবয়েলে মিষ্টি পানি পাওয়া যায় না। কয়েক মাস মোটেই বৃষ্টি না হওয়ায় পানির জন্য ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। প্রতিদিন খাবার পানি কিনে খাওয়ারও সাধ্য নেই আমাদের। তবে শুক্রবার সন্ধ্যায় মুষল ধারে বৃষ্টি শুরু হওয়া সেই অবস্থার মুক্তি মিলেছে কিছুটা। তাই আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করছি আমরা।
Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here