ডেস্ক রিপোর্ট:: আলোচিত দুই জনপ্রিয় তারকা ও সাবেক দম্পতি তাহসান-মিথিলা। কিছুদিন ধরেই এই দুজনের ‘সারপ্রাইজ’ স্ট্যাটাস নিয়ে ব্যাপক আগ্রহ সৃষ্টি হয়েছে ভক্তকুলের মধ্যে। অবশেষে সেই সারপ্রাইজ পেল দর্শকরা। দেশীয় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি তাদের একটি ফেসবুক শোতে এই দুই তারকাকে নিয়ে সামনাসামনি বসেন। সেখানে তারা তাদের নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। কথা বলেন তাদের বিচ্ছেদের পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নেতিবাচক মন্তব্য নিয়েও।

ইভ্যালির ফেসবুক পেজ থেকে শনিবার (১৫ মে) রাত ৯টায় সম্প্রচার করা এই লাইভে বিচ্ছেদের পর এই প্রথম মুখোমুখি বসেন সাবেক এই তারাকা দম্পতি। শুধু তাই নয়, সঞ্চালকের কথায় প্রশ্নোত্তর পর্বেও অংশগ্রহণ করেন তারা।

সম্প্রতি অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরীর সঙ্গে হয়ে যাওয়া সাইবার হয়রানির উদাহরণ টেনে তাহসান বলেন, বিষয়টি তার সঙ্গেও ঘটেছে। এমনকি মিথিলার সঙ্গে আরও বেশি হয়েছে এবং এখনও হচ্ছে। সেলিব্রিটি হওয়ার কারণে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বুলিংয়ের শিকার হন তারা। তবে, ভক্ত-অনুরাগীরা কখনোই এসব করেন না বলে জানান তাহসান।

লাইভে তাহসানের মুখোমুখি হয়ে মিথিলা বলেন, ‘এখানে আমি কিছু ভালো বিষয় প্রমোট করতে এসেছি। কারণ, আমাদের সবাইকে নিয়েই ভালো থাকতে হবে। অনুরোধ করব, আমরা খারাপ কিছু বলব না। খারাপ কিছু শুনবও না। আমাদের ভেতরে পজিটিভিটির চর্চা করা খুব দরকার।’

এরপর তাহসান বলেন, ‘আমি যখন স্ট্যাটাস দিলাম যে, একটা সারপ্রাইজ আছে। ও (মিথিলা) রিপ্লাই দিল। তখন চারদিক থেকে মন্তব্যের ঝড়। আমি ভাগ্যবান, আমার পেজে অনেক ভালো ভালো মন্তব্য আসে। কিন্তু তার মাঝেও প্রতিনিয়ত প্রত্যেক স্ট্যাটাসে ওকে (মিথিলা) নিয়ে নেতিবাচক মন্তব্য থাকে। আমার ভক্ত-শুভাকাঙ্ক্ষীরা তারা ভালো মন্তব্য করেন। কিন্তু কিছু মানুষ আছেন তারা প্রতিনিয়ত নেতিবাচক মন্তব্য ছড়াতে ভালোবাসেন।’

তাহসান বলেন, গত সপ্তাহে দেখলাম, চঞ্চল চৌধুরীর মতো একজন গুণী শিল্পী তার মাকে নিয়ে পোস্ট করেছেন সেখানেও কত নেতিবাচক মন্তব্যের ছড়াছড়ি। এটা শুধু আমার বা মিথিলার বা চঞ্চলের না। যে কোনো সম্মানিত মানুষের বেলায় ঘটছে। বিষয়টা মানসিক ব্যধিতে রূপান্তরিত হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এই লাইভের মাধ্যমে সারপ্রাইজ গিফটের বিষয়টি জানিয়ে তাহসান বলেন, ‘সারপ্রাইজ হচ্ছে, আমরা যে বার্তা দিচ্ছি- আমরা (তাহসান -মিথিলা) আলাদা হয়ে গেছি, কিন্ত আমরা সম্মানে পাশাপাশি বসে কথা বলতে পারি। একে অপরকে কটূ কথা না বলে সম্মানের সঙ্গে আলোচনা করতে পারি। এটা থেকেই যেন পরবর্তী প্রজন্ম শিখতে পারে যে, কারো সঙ্গে তোমার মতের মিল না থাকলেও তার সঙ্গে বসে সম্মানের সাথে কথা বলা যায়। তার সঙ্গে কোনোদিনই কদর্য কথা বলতে হবে না। আমার কথা সহজ যে, পৃথিবীতে নেতিবাচক অনেক কিছু আছে, সেগুলো বাদ দিয়ে ইতিবাচক চর্চা করতে হবে। এটাই হচ্ছে সারপ্রাইজ।’

তাহসানের মতে, দুজন মানুষ আলাদা, কিন্তু পাশাপাশি বসে শ্রদ্ধার সঙ্গে কথা বলতে পারাই সারপ্রাইজ। মতাদর্শ ভিন্ন হলেও যে একে অপরকে সম্মান করা যায়- এই বার্তাটা দেওয়াই মূল উদ্দেশ্য ছিল বলে জানান তাহসান।

তাহসানের পর ইভ্যালির দ্বিতীয় ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হতে যাচ্ছেন রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা। সেই উপলক্ষে স্ট্যান্ডআপ কমেডিয়ান নাভেদের সঞ্চালনায় শনিবার রাত ৯টায় তাহসান ও মিথিলা সরাসরি হাজির হন ফেসবুক লাইভে।

এরআগে গত বুধবার (১২ মে) রাতে নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে একটি পোস্ট করেন তাহসান খান। ইংরেজিতে লেখা সেই পোস্টের অর্থ দাঁড়ায়, ‘এই শনিবার রাতে তোমার জন্য একটা সারপ্রাইজ আছে’। তাহসানের পোস্টের কিছুক্ষণ পর মিথিলা লেখেন, ‘আসলেই?… সারপ্রাইজের অপেক্ষায় রইলাম’। পুরো বিষয়টি ভক্তদের মাঝে ধোঁয়াশা তৈরি করে। অনেকে ধারণা করতে থাকেন তাদের সম্পর্ক হয়তো জোড়া লাগতে যাচ্ছে।

২০১৭ সালের অক্টোবরে প্রায় ১১ বছরের সংসার জীবনের ইতি টানের তাহসান ও মিথিলা। সে সময় তাহসান ভক্তরা বেশ নেতিবাচকভাবেই এর প্রতিক্রিয়া দেখান। পরবর্তীতে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে ভারতের কলকাতার জনপ্রিয় পরিচালক সৃজিত মুখার্জিকে বিয়ে করেন মিথিলা।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here