ব্রেকিং নিউজ
Home / আন্তর্জাতিক / ‌‘রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মনোযোগ কামনা’

‌‘রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মনোযোগ কামনা’

rohengaডেস্ক নিউজ :: সম্প্রতি প্রতিবেশী মিয়ানমার থেকে বিপুলসংখ্যক লোকের অনু প্রবেশের কারণে বর্তমানে বাংলাদেশে সৃষ্ট মানবিক সংকটের পরিপ্রেক্ষিতে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বাংলাদেশ জরুরি ভিত্তিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মনোযোগ কামনা করেছে।

শুক্রবার জাতিসংঘে বাংলাদেশ মিশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলা হয়।

জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন বলেন, ‘সম্প্রতি সীমান্তের ওপার থেকে আসা বিপুলসংখ্যক মানুষের একটি কঠিন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করছে বাংলাদেশ। শান্তি ও মানবতার স্বার্থে বিশেষ করে শিশু, নারী ও বয়স্ক লোকদের দুঃখ-দুর্দশায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের জরুরি ভিত্তিতে মনোযোগ দেওয়া প্রয়োজন।’

জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি জাতিসংঘের উচ্চপর্যায়ের সংস্কৃতি ও শান্তিবিষয়ক ফোরামের সাধারণ বিতর্কে বক্তৃতাকালে এ আহ্বান জানান। নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে সাধারণ অধিবেশন কক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার এই বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়।

বক্তৃতায় তিনি পররাষ্ট্র নীতির সার কথায় ‘শান্তির সংস্কৃতি সন্নিবেশিত করার জন্য সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্মরণ করেন।’

রাষ্ট্রদূত বলেন, বঙ্গবন্ধু ৪২ বছর আগে জাতিসংঘে দেওয়া তার ভাষণে ‘সকলের সঙ্গে বন্ধুত্ব এবং কারো সঙ্গে বৈরিতা নয়’, ‘বিরোধের শান্তিপূর্ণ নিষ্পত্তি’ এবং ‘আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে শক্তি প্রয়োগ বর্জন’- ইত্যাদি কথাগুলো বলেছিলেন।

‘শান্তির সংস্কৃতি’ এগিয়ে নিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূমিকার কথা উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত মাসুদ বলেন, ‘আমাদের প্রধানমন্ত্রী ইতিমধ্যে বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে তার শাসন ও রাজনৈতিক দর্শনের মূল মতবাদ হিসেবে গ্রহণ করেছেন।’

বিতর্ক অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সাধারণ পরিষদের সভাপতি পিটার থমাস। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী বেটি উইলিয়ামস। পরে অনুষ্ঠিত হয় প্যানেল আলোচনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

আখেরি মোনাজাত

আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হল ৫৩তম বিশ্ব ইজতেমা

স্টাফ রিপোর্টার :: রবিবার আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হয়েছে ৫৩তম বিশ্ব ইজতেমা। সকাল ...