১৯ সেরা উদ্ভাবনকে পুরস্কৃত করলো বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম

বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামঢাকা :: বাংলাদেশকে উদ্ভাবনের উচ্চ শিখরে নিয়ে যেতে বিআইসি (বাংলাদেশ ইনোভেশন কনক্লেভ) প্রথমবারের মতো আয়োজন করলো বাংলাদেশ ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড, যেখানে দেশের সেরা ১৯টি উদ্ভাবনী কাজকে পুরষ্কৃত করা হয়।

শনিবার (২১ অক্টোবর) রাজধানীর লা মেরিডিয়ান হোটেলে এক জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে এই পুরষ্কার তুলে দেয়া হয়।

মাস্টারকার্ড এর পৃষ্ঠপোষকতায় অনুষ্ঠিত এই অ্যাওয়ার্ড এর আয়োজনের ছিলো বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম।

বাংলাদেশ ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড এর মূল লক্ষ্য ছিল এদেশের উদ্ভাবনী ক্ষেত্রে স্টার্টআপ কোমপানি থেকে শুরু করে প্রতিষ্ঠিত সংস্থাগুলোর সাফল্য এবং সৃজনশীলতার উদ্দীপক হিসেবে কাজ করা।

বিভিন্ন ক্ষেত্রে সৃজনশীল উদ্ভাবনকে স্বীকৃতি প্রদানের মাধ্যমে উদ্ভাবনী শক্তিকে উদ্দীপ্ত করে বাংলাদেশের অর্থনীতির বিকাশের ক্ষেত্রে উদ্যোগটি একটি উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করবে।

এবারের ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড-এর প্রধান ক্যাটাগরিগুলো ছিলো ক্ষেত্র-ভিত্তিক যেখানে বিবেচিত হয়েছে আর্থিক খাত, পোশাক খাত, স্বাস্থ্যসেবা, এসডিজি অন্তর্ভুক্তকরণ, প্রক্রিয়া, পণ্য উন্নয়ন, স্টার্টআপ, সামাজিক ও প্রযুক্তি খাত। এছাড়া মাস্টার অব রিইনভেনশন নামে একটি বিশেষ ক্যাটাগরিতে পুরষ্কার প্রদান করা হয়েছে।

সেরা স্টার্টআপ ইনোভেশন হিসেবে পুরষ্কৃত হয়েছে সেবা এক্সওয়াইযেড। আর্থিক খাতে সেরা ইনোভেশন হিসেবে পুরষ্কৃত হয়েছে বিকাশ কাস্টমার অ্যাপ। এছড়া সেরা টেকনোলজি ইনোভেশন ছিলো ব্রিলিয়ান্ট আইডিয়াস লিঃ এর ট্রাক লাগবে অ্যাপ।

এসডিজি অন্তর্ভুক্তকরণ খাতে সেরা ইনোভেশন হয়েছে ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশ এর প্রবাহ যা একটি পানি বিশুদ্ধকরন প্রকল্প ।

অনুষ্ঠিত হবার প্রথম বছরেই বাংলাদেশ ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড-এ নয়টি মূল ক্যাটাগরিসহ আরেকটি বিশেষ ক্যাটাগরিতে মোট ১৬৮ টি মনোনয়ন জমা পড়েছিলো। বিজয়ী এবং বিশেষ উল্লেখ্য- এই দুটি ক্রমে পুরষ্কার প্রদান করা হয়। বিজয়ীদের নির্বাচন করার জন্য দুটি বিচারিক অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়, যেখানে দেশের প্রখ্যাত বিশেষজ্ঞদের দ্বারা মনোনয়নগুলো মূল্যায়ন করা হয়।

পণ্য, সেবা কিংবা প্রক্রিয়া খাতে যেকোন ধরণের অগ্রগতি, তাদের নতুনত্ব, বাজারের চাহিদা, অর্থনৈতিক প্রভাব – এ কয়েকটি মানদন্ডের উপর মনোনয়নগুলো মূল্যায়িত হয়।

পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে আরো উদ্বোধন করা হয় বিআইসি-এর উদ্যোগে দেশের চারটি বিভাগে চারটি ইনোভেশন সেন্টার এর কার্যক্রম এর। এই উদ্বোধন কার্যক্রম সঞ্চালনা করে বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের পরিচালক নাজিয়া আন্দালিব প্রিমা। এছাড়াও উদ্বোধন করা হয় বাংলাদেশ ইনোভেশন ব্লগ এর ওয়েবসাইট।

অনূষ্ঠানের শুরুতে মাস্টারকারডের কান্ট্রি ম্যানেজার সাঈদ মোহাম্মদ কামাল তার উদ্বোধনী বক্তব্য প্রদান করেন। উক্ত অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ইনোভেশন কনক্লেভ এর প্রতিষ্ঠাতা শরিফুল ইসলাম ।

তিনি বলেন, “বাংলাদেশ ইনোভেশন কনক্লেভের লক্ষ্য হলো, বাংলাদেশের ভবিষ্যতের অগ্রগতির জন্য নীতি নির্মাতা, ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ, উদ্যোক্তা, শিক্ষাবিদ, তরুণ প্রজন্ম এবং অভিভাবকদের মধ্যে উদ্ভাবনী চেতনাকে কেন্দ্রস’লে স’াপন করা। এবং পরবর্তীতে সেসকল চিন্তা চেতনা কে বাস্তবে রুপান্তরে সহযোগিতা করা।”

অনুষ্ঠানটি আয়োজনে অংশীদার হিসেবে ছিলো সরকারের আইসিটি বিভাগ, ইউএসএআইডি এবং ইউএনডিপি।

এছাড়াও র্স্ট্যাটেজিক পার্টনার হিসেবে ছিল বাংলাদেশ ক্রিয়েটিভ ফোরাম এবং বেসিস; ইভেন্ট পার্টনার – লে মেরিডিয়ান ঢাকা; টেকনোলজি পার্টনার – আমরা টেকনোলজিস লিমিটেড; ডিজিটাল মিডিয়া পার্টনার- গিকি সোশাল; মিডিয়া পার্টনার- ঢাকা ট্রিবিউন; পিআর পার্টনার- মাস্টহেড পিআর; লাইভ ব্রডকাস্ট পার্টনার ডিজিটাল এক্সপ্রেস; এবং রেডিও পার্টনার- রেডিও টুডে।– প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

রোববারের মধ্যে না সরালে সোমবার থেকে ব্যবস্থা: ইসি সচিব

স্টাফ রিপোর্টার :: নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেছেন, আগামীকালের (রোববার) মধ্যে ...