১০ বছর শেকল বন্দি বৃষ্টির চিকিৎসা শুরু

১০ বছর শেকল বন্দি বৃষ্টির চিকিৎসা শুরুকলিট তালুকদার, পাবনা প্রতিনিধি :: অবশেষে পাবনার চাটমোহরের ধানকুনিয়া গ্রামের শেকল বন্দি মানসিক রোগী শুকজান নেছা বৃষ্টির চিকিৎসা শুরু হলো। বুধবার তাকে পাবনা মানসিক হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। বুধবার সকাল ১০ টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অ্যাম্বুলেন্সে করে বৃষ্টিকে পাবনা মানসিক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

এ সময় উপস্তিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরকার অসীম কুমার, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সবিজুর রহমান, উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার রেজাউল করিম, এ্যাকাডেমিক সুপারভাইজার গোলাম মোস্তফা, নিমাইচড়া ইউপি চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান খোকনসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।

দীর্ঘদিন শেকল বন্দি থাকা মানসিক রোগী বৃষ্টিকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়ার খবরে সকালে বৃষ্টিকে দেখতে শত শত উৎসুক মানুষ ভিড় করে।
এদিকে বৃষ্টির জীর্ণ-শীর্ণ বসতঘর মেরামতের জন্য মাপযোক শুরু হয়েছে। আগামী দু’একদিনের মধ্যে ঘর মেরামত শুরু হবে বলে জানান উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরকার অসীম কুমার বলেন, ‘বৃষ্টিকে চিকিৎসকের কাছে পাঠিয়ে খুব ভাল লাগছে। তবে এই আনন্দের মাত্রা আরও বাড়বে যখন সে কিছুটা হলেও সুস্থ হবে এবং কখনই তাকে আর শেকল বন্দি হয়ে থাকতে হবে না।

প্রসঙ্গত, বৃষ্টির জন্মের পর মারা যান মা রোজিনা খাতুন। এরপর বাবা মনিরুল ইসলাম অন্যত্র বিয়ে করে বসবাস শুরু করেন। কোন জায়গায় ঠাঁই না পেয়ে অবশেষে শতবর্ষী মায়ের দাদি রাহেলা বেগমের কাছে আশ্রয় মেলে মানসিক প্রতিবন্ধী বৃষ্টির। দীর্ঘ দশ বছর দিনরাত শেকল বন্দি হয়ে থাকতে হয় বৃষ্টিকে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

লক্ষ্মীপুরে বাল্যবিয়েতে রাজি না হওয়ায় মারধর, কিশোরীর আত্মহত্যা

বাল্যবিয়েতে রাজি না হওয়ায় মারধর: কিশোরীর আত্মহত্যা

জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: লক্ষ্মীপুরে বাল্যবিয়েতে রাজি না হওয়ায় মারধর ...