ব্রেকিং নিউজ

১০ কেজি আলুতে ১ কেজি চাল

১০ কেজি আলুতে ১ কেজি চালআসাদুজ্জামান সাজু, লালমনিরহাট প্রতিনিধি :: লাভের আশায় আগাম জাতের আলু চাষ করেও লোকসান গুনছে লালমনিরহাটের আলু চাষিরা। মৌসুমের শুরুতে কিছুটা দাম থাকলেও এখন প্রতিকেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ৪-৫ টাকা কেজি দরে। কৃষকদের ১০ কেজি আলু বিক্রি করে ১ কেজি চাল কিনতে হচ্ছে। এতে হতাশ হয়ে পড়েছে আলু চাষি কৃষকরা।

চলতি বছর লালমনিরহাট জেলায় ৪ হাজার ৯’শ ৫০ হেক্টর জমিতে আলু চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হলেও জেলায় আলুর চাষ হয়েছে ৬ হাজার হেক্টরও বেশি জমিতে।

বিশেষ করে ইরি-বোরো ধান উৎপাদনের প্রস্তুতি হিসেবে প্রান্তিক চাষিরা কিছুটা বাধ্য হয়েই অন্যের জমি বর্গা নিয়ে আলু, রসুন, সরিষা, গম ও ভুট্টা চাষের অতি আগ্রহী হয়ে উঠছে। মৌসুমের শুরুতে বাজারে প্রতিকেজি আলু ৩০-৩৫ টাকা দরে বিক্রি হয়। ক্রমান্বয়ে আলুর দাম কমতে কমতে ১৫-২০ টাকায় পৌঁছায়। এ দিকে গত এক সপ্তাহ থেকে দাম আরো কমে ৪-৫ টাকায় এসে পৌঁছেছে।

সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগর গ্রামের কৃষক আমিনুর রহমান জানান, তিনি এবার এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে ২ বিঘা জমিতে আলু আবাদ করে। উৎপাদনও হয়েছে বেশ ভাল। কিন্তু আলু হতে দেরি হওয়ায় তিনি এখন মহাবিপদে পড়েছে। বাজারে আলুর দাম না থাকায় না পারছে এনজিওর ঋণের কিস্তি দিতে, না পারছেন আলু মজুদ করতে।

আদিতমারী উপজেলার সাপটিবাড়ী এলাকার সাদেকুল ইসলাম বলেন, প্রতিকেজি আলু উৎপাদনে তার খরচ হয়েছে ৮-৯ টাকা। অথচ সেই আলু বিক্রি করতে হচ্ছে প্রতি কেজি ৪-৫ টাকা দরে। প্রতি কেজিতে ৩-৪ টাকা লোকসান গুনতে হচ্ছে।

লালমনিরহাট কৃষি অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক বিদু ভূষণ রায় জানান, বিগত বছরের তুলনায় জেলায় এবার আলুর বাম্পার ফলন হয়েছে। কিন্তু বাজারে দাম না থাকায় কৃষকরা তাদের উৎপাদন খরচও তুলতে পারছে না। এভাবে চলতে থাকলে কৃষকদের আলু চাষের উৎসাহ কমে যাবে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

২০ তরুণ নারী উদ্যোক্তাদের সাথে দর্পণের চুক্তি স্বাক্ষরিত

২০ তরুণ নারী উদ্যোক্তাদের সাথে দর্পণের চুক্তি স্বাক্ষরিত

ঢাকা :: বাংলাদেশের দেশীয় পণ্যের প্রথম ডিজিটাল মার্কেটপ্লেস দর্পণ- ফেসবুকের অন্যতম মহিলা ...