ব্রেকিং নিউজ

হজ্বের প্রাথমিক কার্যক্রম শুরু

সৌদি আরবে  শুক্রবার পবিত্র হজের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ফজরের নামাজের পরই হজযাত্রীরা মক্কা নগরী থেকে ইহরাম বেঁধে মিনার উদ্দেশে রওনা হয়েছেন। তবে গতকাল বাসে, গাড়িতে অথবা হেঁটে অনেক হজযাত্রী মিনায় পৌঁছেছেন। এই মিনাতে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সাঃ) ৬৩২ খ্রিস্টাব্দে হজ পালন করেন। বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, এ বছর ২৫ লক্ষাধিক হজযাত্রী মহানবীর (সা.) পবিত্র জন্মস্থান সৌদি আরবে সমবেত হয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন স্থান থেকে ১৭ লাখ ও সৌদি আরবের ৭ থেকে ৮ লাখ ধর্মপ্রাণ মানুষ এবার হজব্রত পালন করছেন। আজ হাজীরা আরাফাতের ময়দানে অবস্থান করবেন। ‘লাব্বায়েক আল্লাহুমা লাব্বায়েক’ ধ্বনিতে মুখরিত হবে আরাফাত ময়দান। হিজরী ক্যালেন্ডার অনুযায়ী আজ ৮ জিলহজ ‘মিনায় অবস্থানের দিন’। মিনায় অবস্থান করা হজের গুরুত্বপূর্ণ সুন্নত। এখানে আজ জোহর, আছর, মাগরিব, এশা এবং আগামীকাল ফজরের নামাজ পড়েই হাজীরা আরাফাতের ময়দানের উদ্দেশে রওনা হবেন। এএফপি জানায়, মিনায় পৌঁছে হাজীরা নামাজ পড়ার পাশাপাশি সেখানে দর্শনীয় স্থানগুলো ঘুরে দেখছেন।হজের অংশ হিসেবে মিনায় তিন শয়তানকে কঙ্কর করতে হয়। মসজিদে খায়েফের দিক থেকে মক্কার দিকে আসার সময় প্রথমে জামারায় সগির (ছোট শয়তান), তারপর জামারায় ওস্তা (মেজ শয়তান) এবং পরে আছে জামারায় আকাবা (বড় শয়তান)। শয়তানের প্রতি ঘৃণা প্রকাশের বহিঃপ্রকাশ হিসেবে প্রত্যেক শয়তানকে সাতটি করে কঙ্কর মারতে হয়। হযরত ইব্রাহিম (আ.) নিজ সন্তান ইসমাইলকে (আ.)কে কোরবানি করার জন্য মিনায় নিয়ে যাচ্ছিলেন। জামারায় পৌঁছলে শয়তান তাকে ধোঁকা দেয়। তখন শয়তানকে ল্য করে তিনি কঙ্কর নিপে করেন।
হাজীদের স্বাচ্ছন্দ্যে চলাচলের জন্য এই প্রথমবারের মতো চীনা কোম্পানি নির্মিত মক্কা মেট্রো রেল সার্ভিস চালু করা হয়েছে। মিনা, মুজদালিফা এবং আরাফাত এই তিন শহরের মধ্যে এই রেল চলবে। এতে প্রতি ঘণ্টায় ৭২ হাজার হাজী যাতায়াত করতে পারবে। প্রকল্প পরিচালক আবু তারবুস জানান, আগে সেখানে ৩০ হাজার যানবাহন দিয়ে হাজীদের তিনস্থানে পরিবহন করা হতো, এবার রেলপথে তারা যাতায়াতের সুবিধা পাচ্ছেন। সৌদি আরবের হাজী, উপসাগরীয় দেশগুলোর হাজী ও দক্ষিণ এশিয়া থেকে আগত ২ লাখ হাজী এবার ট্রেনের এই সুবিধা ভোগ করতে পারবেন। আগামীকাল সূর্য পশ্চিমাকাশে হেলে পড়ার পর থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত আরাফাত ময়দানে অবস্থান করা হজের অন্যতম প্রধান উদ্দেশ্য। মিনার উদ্দেশে রওনার আগে গতকাল লাখ লাখ মুসল্লি ফজরের নামাজ আদায় করেন। কাবাঘর তাওয়াব করে এজন্য প্রস্তুতি নিতে থাকেন।হজের জন্য সৌদি সরকার ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে বলে এএফপি জানায়। মক্কার আকাশে হেলিকপ্টার টহল দিচ্ছে। এদিকে গতকাল পর্যন্ত এক লাখ ৫ হাজার ৬১৭ জন বাংলাদেশী হজযাত্রী মক্কায় পৌঁছেছেন। এবার পবিত্র হজ পালন করতে এসে এ পর্যন্ত ৪০ জন বাংলাদেশী মারা গেছেন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষক নেই কেন?

স্টাফ রিপোর্টার :: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংসদ বহাল রেখে নির্বাচন অনুষ্ঠিত ...