ব্রেকিং নিউজ ❯
Home / শীর্ষ নিউজ / স্বামীর নির্যাতন ঠেকাতে বিয়েতে কাঠের ব্যাট উপহার!

স্বামীর নির্যাতন ঠেকাতে বিয়েতে কাঠের ব্যাট উপহার!

স্বামীর নির্যাতন ঠেকাতে বিয়েতে কাঠের ব্যাট উপহার!ডেস্ক নিউজ :: বিয়েতে বর-কনের জন্য নানা ধরনের উপহার দেয়া বিভিন্ন সমাজে রীতি প্রচলিত আছে। দামী গহনা থেকে শুরু করে আসবাবপত্র এবং আরো নানা ধরনের উপহার সামগ্রী বিয়েতে দেয়া হয়। কিন্তু বিয়েতে উপহার হিসেবে কাঠের ব্যাট দেয়া খুবই বিরল ঘটনা।

তবে উপহার হিসেবে কাঠের ব্যাট দেবার একটি ভিন্ন কারণ রয়েছে। স্বামীর সম্ভাব্য নির্যাতনের হাত থেকে রক্ষার জন্য ব্যতিক্রমী এ উপহার দেয়া হলো।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মধ্য প্রদেশে। সেখানে এক গণ বিয়ের অনুষ্ঠানে মধ্য প্রদেশের একজন মন্ত্রী গোপাল ভারগাভা নব বিবাহিতা মেয়েদের হাতে উপহার সামগ্রী হিসেবে কাঠের ব্যাট তুলে দিয়েছেন।

মন্ত্রী বলেছেন, তাদের স্বামীরা যদি স্ত্রীদের প্রতি সহিংস হয়ে উঠে তখন নিজেদের রক্ষা করার জন্য কাঠের ব্যাট ব্যবহার করতে পারে। মধ্য প্রদেশে নারী নির্যাতনের বিষয়টি সবার সামনে তুলে আনতে প্রতীকী উপহার হিসেবে কাঠের ব্যাট দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সে মন্ত্রী।
নব বিবাহিতা মেয়েদের মন্ত্রী আরো পরামর্শও দিয়েছেন যাতে এ স্বামীদের বিরুদ্ধে এ ব্যাট ব্যবহার করার আগে তাদের বোঝানোর চেষ্টা করা হয়। কিন্তু তারপরেও যদি কোন স্বামী সহিংস হয়ে উঠে তাহলে এ ব্যাট ব্যাবহার করা উচিত বলে মন্তব্য করেন তিনি।

বিয়েতে উপহার হিসেবে ক্রিকেট ব্যাট দেবার ছবি মন্ত্রী তার ফেসবুকেও পোস্ট করেছেন। তিনি বলেন গ্রামাঞ্চলে মদ্যপ স্বামীদের হাতে স্ত্রীদের নির্যাতনের ঘটনা তাকে উদ্বিগ্ন করে তুলেছে।

“মহিলারা আমাকে বলেছেন যে তাদের স্বামীরা যখন মদ্যপান করে তখন তারা সহিংস আচরণ করে। মহিলারা যে টাকা পয়সা জমায় সেটা ছিনিয়ে নিয়ে স্বামীরা মদ্যপান করে,” বলছিলেন মন্ত্রী গোপাল ভারগাভা।

মন্ত্রী জানিয়েছেন তিনি দশ হাজার কাঠের ব্যাট তৈরির অর্ডার দিয়েছেন। কয়েকদিন আগে এক গণ বিয়ের অনুষ্ঠানে নব বিবাহিতা মেয়েদের হাতে সাতশ ব্যাট তুলে দেন মন্ত্রী।

ভারতে অতি দরিদ্র পরিবারের জন্য বিভিন্ন জায়গায় গণ বিয়ের আয়োজন করা হয়। গণ বিয়ের এ অনুষ্ঠানে পাত্র ও কন্যা পক্ষকে কোন খরচ বহন করতে হয়না।–বিবিসি।

http://www.unitednews24.com/wp-content/uploads/2016/08/Untitled-1-copy-1.jpg

About ahm foysal

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*