সোমবার দেশব্যাপী বিএনপির কালো পতাকা মিছিল

ঢাকা: প্পদত্যাগী মন্ত্রীদের নিয়ে প্রধানমন্ত্রী রোববার সকালে যে ক্যাবিনেট মিটিং করছেন এটাকে প্রজাতন্ত্রের সংবিধানের গুরুতর লংঘন বলে দাবি করেছেন বিএনপির যুগ্ন মহাসচিব রহুল কবির রিজভী আহমেদ।

এর প্রতিবাদে বিএনপিসহ ১৮দলীয় জোট আগামীকাল ঢাকা মহানগরীসহ সারাদেশের জেলা উপজেলা ও মহানগরীতে কালো পতাকা মিছিলের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে।

সকালে দলের নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কর্মসূচির ঘোষণা দেন।

রিজভী অভিযোগ করেন, বিএনপিসহ ১৮দলীয় জোটের নেতাকর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে র‌্যাব পুলিশের পোষাক পড়ে যুবলীগ ছাত্রলীগের সদস্যরা হানা দিচ্ছে। ঢাকা মহানগরসহ সারাদেশে এখন পর্যন্ত পাওয়া তথ্য মতে গ্রেফতার ২৫ জনের অধিক নেতাকর্মী। আহত – ২৫০ জনের অধিক নেতাকর্মী।

এছাড়া,গত ১৬ নভেম্বর থেকে এখন পর্যন্তু  ঢাকা মহানগরসহ সারাদেশে গ্রেফতার ৮০ জনের অধিক নেতাকর্মী , আহত  ৪০০ জনের অধিক নেতাকর্মী বলে দাবি করেন রিজভী।

রিজভী সংবাদ সম্মলনে বলেন, শনিবার গভীর রাতে স্বেচ্ছাসেবক দল কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেলের বাসায় ডিবি পুলিশ-র‌্যাব যৌথভাবে হানা দিয়ে বাসা তছনছ করে ফেলে এবং তার স্ত্রীর সাথে চরম দুর্ব্যবহার করে। অন্যদিকে সপুকে পুলিশ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এছাড়া যুবদল ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি মামুন হাসানের বাসায় পুলিশ হানা দিয়ে টিভি, ফ্রিজসহ মুল্যবান সামগ্রী নিয়ে যায় এবং সকল আসবাবপত্র ভাংচুর করে । এছাড়া পরিবারের সদস্যদের  বেধড়ক মারপিট করে।

সপুকে কেন পুলিশ লাইন হাসপাতালে নেয়া হয়েছে এ বিষয়ে সরকারের কাছে জানতে  চেয়ে রিজভী বলেন, তার এখন কি অবস্থা, তার ওপর কি ধরণের নিীড়ণ নির্যাতন চালানো হয়েরেছ এ বিষয়ে দেশবাসী জানতে চায়।

শনিবার প্রধানমন্ত্রী বিরোধী দলের নেতার উদ্দেশ্যে বলেন, আমি দেশ ও জনগণের স্বার্থে তাঁকে আলোচনায় বসার অনুরোধ জানিয়েছিলাম। কিন্তু বিরোধী দলীয় নেতা যে ভাষায় আমার আমন্ত্রণ প্রত্যাখান করলেন তা মোটেই শোভন ছিলনা।

তাঁর এই বক্তব্যটি স্ববিরোধীতায় ভরা উল্লেখ করে বিএনপির যুগ্ন মহাসচিব বলেন, জানিনা তাঁর রাজনীতির শিক্ষকরা ‘মিথ্যা’ নামক টার্মটি তাঁকে কিভাবে শিখিয়েছিলেন। আড়ালে বললেও এক কথা, কিন্তু প্রকাশ্য জনসমক্ষে টাওয়ারিং মিথ্যাগুলো যখন জনগণ শোনে তখন নিজ দেশের প্রধানমন্ত্রীর মান সম্পর্কে তারা লজ্জিত ও ক্ষুদ্ধ হন।
Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

৩২ ধারা বহাল রেখে ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল পাস

ষ্টাফ রিপোর্টার :: সাংবাদিক ও মানবাধিকার সংগঠনসহ বিভিন্ন মহলের আপত্তি সত্ত্বেও বহুল ...