ব্রেকিং নিউজ

সংবাদ সাংবাদিকতা ও শিরোনাম

সারোয়ার মিরন ::  সম্প্রতি জেলা শহর লক্ষ্মীপরে একটি মার্কেট (শপিং কমপ্লেক্স) উদ্বোধন হলো। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগের কল্যানে অামরা বিষয়টি সম্পর্কে জানতে পেরেছি। অবশ্য বেশ কিছুদিন পুর্বে উক্ত স্থাপনাটি দেখার সৌভাগ্য হয়েছিল অামার। নি:সন্দেহে বিলাসবহুল ও অাধুনিক স্থাপনা এটি। দৃষ্টিনন্দন ও ব্যয়বহুল ভবন।

উক্ত মার্কেটটির শুভ উদ্বোধনের নিউজটি জাতীয় পত্রিকায় তেমন একটা দেখা না গেলেও লক্ষ্মীপুর ও নোয়াখালীর প্রায় সকল অাঞ্চলিক অনলাইন অফলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। সবকটি মাধ্যমই নিউজটির হেড লাইন করছে একই রকম। ” লক্ষ্মীপুর চকবাজারে ২৯ কোটি টাকা ব্যয়ে মসজিদ মার্কেট উদ্বোধন”।

অামার অালোচনার বিষয় উল্লেখিত এ শিরোনামকে ঘিরেই। সংবাদ বা একটি লেখার প্রধানতম কাজ বা বিষয় হলো উপযুক্ত শিরোনাম নির্বাচন। যা দেখে পাঠক নিউজটি পড়তে চাইবে। কিন্তু সংবাদের শিরোনাম দেখিয়ে পাঠককেই যদি মুল সংবাদ পড়তে উদ্বুদ্ধ না করা যায় তাহলে সংবাদ হিসেবে সে লেখার কোন মুল্যই থাকেনা। একজন সংবাদকর্মী কিংবা সংবাদ লেখক তখনই সফল যখন শিরোনাম দেখেই পাঠক বিস্তারিত জনার জন্য পুরো সংবাদ পড়তে বাধ্য হন বা হবেন। অার এ কঠিন কর্মটি সাধন করতে পারাটাই সংবাদকর্মীর গুন বা ক্রিয়েটিভিটি। অাপাতদৃষ্টিতে কাজটি সহজ বলে মনে করা হলেও অাসলে কাজটি ততটা সহজসাধ্য নয়। অপ্রিয় হলেও সত্য অনেক সংবাদকর্মীই এ বিষয়টাতে অবহেলা করছেন কিংবা বিষয়টা সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারনার অভাব বোঝা যাচ্ছে।

সংবাদ লেখক হিসেবে শিরোনাম নির্ধারন করাটাই জরুরী কাজ। একজন পাঠক যদি শিরেনামেই সব তথ্য বা তত্ত্ব পেয়ে থাকেন তাহলে কোন দুঃখে তিনি ভেতরের মুল নিউজটি পড়তে যাবেন!!! অালোচ্য শিরোনামটিতেই সব তথ্য পাঠক পেয়ে যাবার দারুন উদাহরন। এবার বলুন তো পাঠক যদি মুল সংবাটাই না পড়লো কিংবা পাঠককে মুল সংবাদ পাঠে বাধ্য করা না গেলো তাহলে লেখার কি মুল্য থাকলো!!

অাশ্চর্য্যের বিষয় হলো এ নিউজটি শিরোনামসহ অামি প্রথম দেখি অামার এক ফেবু ফ্রেন্ডের পোস্টে। পরবর্তীতে প্রায় সবকটি সংবাদ মাধ্যমই একই শিরোনামে এদিক সেদিক থেকে কপি পেস্ট করে নিউজ করেছে। কেউই সংবাদ মুল্য বিবেচনা করে নিউজ ছাপেনি। হতে পারে নিউজটি এভাবে করার জন্য অন্তরালের কোন বিষায়াদি থাকতে পারে।

দেশে অারো অধিক পরিমান টাকা ব্যয় করেও মার্কেট শপিংমল ইত্যাদি স্থাপিত হয়। হচ্ছে। তাই বলে শিরোনামে টাকা ব্যয়ের কথাটি উল্লেখ করে কি বোঝানো হয়ে থাকতে পারে বোধগম্য নয়। হতে পারে এখানেও কোন অন্তরালের কিচ্ছা কাহিনী থাকতে পারে! টাকা ব্যয়ের কথা সংবাদ বড়িতে অাসতেই পারে এবং না অাসাটা বরং অস্বাভাবিক। তাই বলে শিরোনামই!! হয়তো ব্যয়ের টাকার পরিমান উল্লেখ করে সংবাদের শুরুতেই পাঠককে মার্কেটের মহাত্ম বোঝানোর চেষ্টা করা হয়েছে। কিংবা হতে পারে মার্কেটটিকে দামী হিসেবে উপস্থাপন করা হয়েছে!!! অাচ্ছা সংবাদকর্মী হিসেবে অামার কোনটা অাগে করা উচিত ছিলো?? অামি কি নিউজের ভ্যালু দেখবো নাকি পাঠকের অাগ্রহের বিষয়টাতে নজর দেব? নাকি পত্রিকার স্বার্থ দেখবো??

শিরোনাম থেকেই অামরা জানে পারি- শপিংমলটি লক্ষ্মীপুরের চকবাজারে। যার নির্মান ব্যয় হয়েছে ২৯ কোটি টাকা। এটি চকবাজার জামে মসজিদ মার্কেট। বলুন তো! অামি শিরোনামেই তো সব উপাত্ত কিংবা জিজ্ঞাসা জানতে পারলাম। কোন অাকাংখায় অামি পুরো লেখা পড়তে যাবো। অার পাঠক হিসেবে অামার এ না পড়াটাই পত্রিকার জন্য মারাত্মক ক্ষতি। অনলাইন হলে সংবাদে হিট পাবে না অার কাগজ হলে তোz তুচ্ছই।

সুন্দর, অাকর্ষনীয় এবং উপযুক্ত শিরোনাম নির্বাচন করা সব লেখার জন্যই গুরুত্বপুর্ন। শিরোনাম দেখেই পাঠক পুরে লেখাট পড়বে।পড়তে চাইবে। সংবাদ কিনে পড়বে। শিরোনামের অনুপযুক্ততায় পাঠক স্পৃহা নি:শেষ হয়ে য়াবে। নিউজ পড়বে না। অার পাঠকের এ অনাগ্রহটাই সংবাদ, সংবাদকর্মী, পত্রিকা সবার জন্য অকল্যানকর।

লেখক: ফ্রিল্যান্সার ও উন্নয়নকর্মী
sarwarmiran87@gmail.com

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

এএইচএম নোমান

সত্তর’র ভয়াল ১২ নভেম্বর: ধ্বংস থেকে সৃষ্টি

এএইচএম নোমান :: ১৯৭০ সালের ১২ নভেম্বর গভীর রাতে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান তথা ...