‘শেখ রাসেল আমাদের ভালবাসা’ কবিতার বই প্রকাশ

‘শেখ রাসেল আমাদের ভালবাসা’ কবিতার বই প্রকাশস্টাফ রিপোর্টার :: বাংলাদেশ শিশু একাডেমীতে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৪ তম জন্ম দিবস উদযাপিত হয়েছে। অনুষ্ঠান সূচির মধ্যে ছিল বাংলাদেশ শিশু একাডেমীর ছাত্র-ছাত্রীদের অংশ গ্রহনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, রচনা প্রিতিযোগীতা, কবিতা আবৃত্তি, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা এবং ‘‘শেখ রাসেল আমাদের ভালবাসা’’ শীর্ষক কবিতা বইয়ের মোড়ক উন্মোচন।

কবিতা বইয়ের রচয়িতা মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম এনডিসি। কবিতার বইটি ছোট ছোট ছড়া এবং শেখ রাসেলের ছবি সম্বিলিত ।

বাংলাদেশ শিশু একাডেমীর চেয়ারম্যান কথা সাহিত্যিক সেলিনা হোসেনের সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেনে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি এম.পি।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি রেবেকা মোমেন এমপি, সংসদ সদস্য কবি কাজী রোজী এবং সাবেক সচিব কবি ড. কামাল আব্দুল নাছের চৌধুরী। আলোচক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কবি আসলাম সানী, বাংলাদেশ শিশু একাডেমীর পরিচালক আনজীর লিটন প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেহের আফরোজ চুমকি বলেন শেখ রাসেলের জন্ম দিনটি খুব আনন্দের দিন কিন্তু আমরা দিনটি আনন্দের সাথে উদযাপন করতে পারিনা। কারন শেখ রাসেলের কথা মনে হলে আমাদের ইতিহাসের জঘন্যতম হত্যাকান্ড ১৫ আগষ্ট ১৯৭৫ সালের কথা মনে হয়। খুনিরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে নির্মম ভাবে হত্যা করে। ছোট শিশু রাসেল সে দিন ঘাতকের নির্মম বুলেট থেকে রেহাই পাইনি। শেখ রাসেল বেঁচে থাকলে আজ একজন দক্ষ রাষ্ট্র নায়ক হিসাবে বাংলাদেশের উন্নয়নে অবদান রাখতে পারত। তিনি বলেন খুনিরা সেদিন ভেবেছিল এ হত্যা কান্ডের কোন বিচার হবেনা। তাই তারা দাম্ভিকতার সাথে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়িয়েছিল। কিন্তু জাতির পিতার কন্যা জননেতী শেখ হাসিনা শিশুদের জন্য একটি সুন্দর বাংলাদেশ উপহার দিতে এ হত্যাকান্ডের বিচার করেছেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ‘‘শেখ রাসেল আমাদের ভালবাসা’’ শীর্ষক কবিতা বইয়ের রচয়িতা মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম এনডিসি বলেন শোককে শক্তিতে রূপান্তকরিত করতে হবে। শিশুদের জন্য সুন্দর বাংলাদেশ গঠন করতে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন আজকের শিশুরা ১৯৪১ সালের সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠনের কারিগর হবে। তাই শিশুদের যতœ নিতে হবে। তাদের কথা শুনতে হবে। তাদেরকে গুরুত্ব দিতে হবে।

সেলিনা হোসেন বলেন নিষ্পাপ শিশু শেখ রাসেল হত্যা ইতিহাসের এক জঘন্যতম অধ্যায়।

উল্লেখ্য, শেখ রাসেলের জন্ম দিবস উপলক্ষ্যে প্রতিযোগীতায় অংশ গ্রহনকারীদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি এম.পি।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

নৌবাহিনীর বার্ষিক ক্বিরাত ও আযান প্রতিযোগিতা সমাপ্ত

নৌবাহিনীর বার্ষিক ক্বিরাত ও আযান প্রতিযোগিতা সমাপ্ত

আইএসপিআর :: বাংলাদেশ নৌবাহিনীর বার্ষিক ক্বিরাত ও আযান প্রতিযোগিতা-২০১৮ আজ শুক্রবার (১৬-নভেম্বর) ...