শিক্ষকদের অনশন ভাঙালেন মন্ত্রী

শিক্ষকদের অনশন ভাঙালেন মন্ত্রীস্টাফ রিপোর্টার ::  প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকরা আমরণ অনশন কর্মসূচি স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সোমবার প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে শিক্ষকদের প্রতিনিধিদলের বৈঠকের পর এ কর্মসূচি স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষক সংগঠনের নেতারা।

বিকেলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে মিন্টো রোডে তার বাসভবনে এ বৈঠক হয়।

বৈঠক শেষে শিক্ষকদের প্রতিনিধিদলের সদস্য তপন কুমার মন্ডল বলেন, মন্ত্রী আমাদের বলেছেন, তিনি আমাদের দাবি-দাওয়াগুলো বিবেচনা করবেন।

শিক্ষক প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠক শেষে প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, না খেয়ে দাবি আদায় করা সম্ভব না। দাবি-দাওয়া পূরণ করতে হলে আলাপ-আলোচনা করতে হয়। আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে দাবি আদায় করা যায়।

সন্ধ্যায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব মোহাম্মদ আসিফ-উজ-জামান, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের উপস্থিতিতে আন্দোলনরত শিক্ষকরা শরবত খেয়ে অনশন ভাঙবেন।

এর আগে বিকেল ৩টা ২০ মিনিটে মন্ত্রীর মিন্টো রোডের বাসভবনে যান শিক্ষকদের ১২ জন প্রতিনিধি।

গত ২৩ ডিসেম্বর (শনিবার) সকাল ১০টা থেকে বাংলাদেশ প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক মহাজোটের উদ্যাগে এ অনশন কর্মসূচি শুরু হয়। মহাজোটের অধীনে সহকারী শিক্ষকদের ১০টি সংগঠনের হাজার হাজার শিক্ষক দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এসে যোগ দেন অনশন কর্মসূচিতে।

তাদের দাবি, আগের বেতন স্কেলগুলোতে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকদের এক ধাপ নিচে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকরা বেতন পেতেন। কিন্তু ২০১৫ সালের বেতন কাঠামোতে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকদের সঙ্গে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকদের ব্যবধান তিন ধাপ।

এখন প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকরা ১৪তম গ্রেডে (মূল বেতন ১০ হাজার ২০০ টাকা) বেতন পাচ্ছেন। আর প্রধান শিক্ষকরা পাচ্ছেন ১০তম গ্রেডে (মূল বেতন ১৬ হাজার টাকা)। সহকারী শিক্ষকরা এ বৈষম্য নিরসনে প্রধান শিক্ষকদের এক ধাপ নিচে ১১তম গ্রেডে (১২ হাজার ৫০০) বেতন চান।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

‘আমাকে এখনও কেন হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছে না’

ষ্টাফ রিপোর্টার :: বিএনপি চেয়ারপারসন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ৮ মাস ...