শহর নয়, গ্রামেও উন্নয়ন পৌঁছে দিতে চাই: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রীষ্টাফ রিপোর্টার :: তথ্যপ্রযুক্তি সেবা সবার দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, উন্নয়ন শুধু রাজধানীকেন্দ্রিক বা শহর নয়, গ্রামেও উন্নয়ন পৌঁছে দিতে চাই।

আজ বুধবার (২ মার্চ) সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ শিক্ষা তথ্য ব্যুরো ও পরিসংখ্যানের (বেনবেইস) উদ্যোগে নির্মিত ১২৫ উজেলায় আইসিটি ট্রেনিং অ্যান্ড রিসোর্স সেন্টার ফর এডুকেশনের (ইউআইটিআরসিই) উদ্বোধন উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা কেবল রাজধানীকেন্দ্রিক নয়, তৃণমূল পর্যায়ে নিয়ে যাচ্ছি উন্নয়ন। গোটা বাংলাদেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি। ৫ হাজার ২৬৫ ডিজিটাল সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে, ডিজিটাল কেন্দ্র করে দেয়া হয়েছে ৮ হাজার পোস্ট অফিসকেও। সৃষ্টি হয়েছে কর্মসংস্থান।’

‘শহর-গ্রাম সবখানে সমান উন্নয়ন করতে চাই। গ্রামাঞ্চলের মানুষের পুষ্টি ও স্বাস্থ্য নিশ্চিত করা হয়েছে’, বলেন শেখ হাসিনা।

তথ্যপ্রযুক্তিতে সরকারের নেয়া নানা উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘সরকারের নেয়া নানা পদক্ষেপের কারণে এখন প্রত্যেক ছেলেমেয়েই একজন উদ্যোক্তা। তারা সৃষ্টি করছে কর্মসংস্থান।’

শিক্ষাখাতে আওয়ামী লীগ সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের বর্ণনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘শিক্ষাকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি আমরা। শিক্ষা ছাড়া একটা দেশের উন্নয়ন সম্ভব না। এজন্য বিনামূল্যে বইও দেয়া হচ্ছে। এখন প্রাথমিক স্তরে ঝরে পড়া শিক্ষার্থীর হার কমে গেছে। বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়েও সহায়তা দিচ্ছি।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘তথ্যপ্রযুক্তি শুধু দৈনন্দিন কাজই নয়, দুর্নীতিমুক্ত করতেও ডিজিটালাইজড করা দরকার। তাই সরকার নানা ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে। আমরা যখন ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণা দিই, তখন লোকে ঠাট্টা করতো। কিন্তু এখন প্রমাণ হয়েছে। গ্রামীণ পর্যায়ে স্থাপিত ডিজিটাল সেন্টারগুলোতে তারা উপকৃত হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘তথ্যপ্রযুক্তির উন্নয়নের ফলে এখন মোবাইল সবার হাতে হাতে। ১৬ কোটি মানুষের মধ্যে ১৩ কোটি সিম ব্যবহার করছে। মোবাইলে বাংলা কন্টেন্ট চালু করা হয়েছে। এতে যাদের অক্ষর জ্ঞান ছিল না, তারাও যোগাযোগ করার জন্য অক্ষর জ্ঞান অর্জন করে নিচ্ছে।’

তিনি বলেন, আজ বিশ্বে বাংলাদেশ একটা মর্যাদাপূর্ণ অবস্থানে আছে। কারও কাছে হাত পেতে চলতে হবে না। আমরা বীরের জাতি, আমরা বিজয়ী হবো। আর এভাবেই বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হবে।

ইউআইটিআরসিই-এর উদ্বোধন শেষে টুঙ্গীপাড়া, কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম, রাজশাহীর পবায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শিক্ষকদের সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

অনুষ্ঠানে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব সোহরাব হোসাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন- শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ, ঢাকায় নিযুক্ত কোরিয়ান রাষ্ট্রদূত আন সিয়ং ডু ও ইউআইটিআরসিই প্রকল্প পরিচালক ফসিউল্লাহ।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ

তারেক রহমানের ভিডিও কনফারেন্স আচরণবিধি লঙ্ঘন নয়: ইসি সচিব

স্টাফ রিপোর্টার :: বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকারে লন্ডন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দলটির ...