যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী ওপর স্বামীর নির্যাতন

রেজাউল হকরেজাউল হক, রামগতি (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি :: যৌতুকের দাবি মেটাতে না পারায় স্ত্রীর ওপর নির্মম নির্যাতন চালিয়েছেন স্বামী মোঃ ফারুক হোসেন। শুক্রবার রাতে লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার চর পোড়াগাছা ইউনিয়নের চর বেদমা গ্রামের মৃত মাষ্টার কলিম উল্যার বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় নির্যাতিতা রোকছানা বেগম বাদী হয়ে ৮ জনের নাম উল্লেখ করে রামগতি থানায় মামলা ( নং ০২ (১১)১৬ ইং) দায়ের করেছেন।
জানা যায়, এক বছর আগে উপজেলার চর বাদাম ইউনিয়ন  পরিবার কল্যান পরিদর্শক এফপি আই মোঃ ফারুক হোসেনের সঙ্গে রোকছানার পরিচয় হয়। রোকছানা রামগতি পৌরসভার (৯নং ওয়ার্ড) চর হাসান হোসেন গ্রামের সামছুল হকের মেয়ে। রোকছানার পরিবারের অমতে গত ৫ জুন ২০১৬ উপজেলার চর আলগী ইউনিয়নের চর নেয়ামত গ্রামের আবুল বাসার মাষ্টারের বাড়ীেেত বিবাহোত্তর রোকছানাকে ঘরে তোলে নেয়  ফারুক। এরপরই রোকছানা জানতে পারেন চর রমিজ গ্রামের আয়েশা ছিদ্দিকাকে  বিয়ে করেছেন তার স্বামী।

আয়েশা ছিদ্দিকার ঘরে এক ছেলে এক মেয়ে রয়েছে। এরপরও ভালোই চলছিল তাদের দাম্পত্য জীবন। কিছুদিন  যাওয়ার পর স্বামী  ফারুর ও তার মা, ভাই-বোন মিলে নানা অজুহাতে রোকছানার ওপর অত্যাচার চালাতে থাকে। বাবার বাড়ী থেকে আনতে বলা হয় পাঁচ লাখ টাকা যৌতুক। দাবিকৃত টাকা আনতে অপারগতা প্রকাশ করায় অত্যাচার কয়েকগুণ বেড়ে যায়।

শুক্রবার  রাতে স্বামী ফারুক ঘরে ঢুকে আলো নিভিয়ে রোকছানার মুখ চেপে ধরে কিল-ঘুষি মারেন। একপর্যায় লাঠি দিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি মারধর এবং  উভয় হাত, বাম পায়ের হাঁটুর নীচে, বাম কাঁধে ও মাথায় ব্লেড দিয়ে কাটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। রোকছানার চিৎকারে আশপাশের লোকজন  এসে তাকে উদ্ধার করে। সকালে খবর পেয়ে পিতা সামছুল হক স্থানীয় চেয়ারম্যানের সহায়তায় রোকছানাকে এনে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। আর এ সুযোগে পালিয়ে যান ফারুক।

রোকছানা নির্যাতনের ঘটনার বর্ণনা দিয়ে কেঁদে ফেলেন। তিনি বলেন, বিয়ের কিছুদিন পর থেকে আমার ওপর নির্যাতন চলছে। পরিবারের অমতে বিয়ে করার কারনে মুখ বুজে সহ্য করে আসছি। স্ত্রীকে এভাবে স্বামী ব্লেড দিয়ে কাটতে পারে তা কল্পনায়ও করতে পারিনি। আমি নরপশু ফারুকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

খুলনা বিএল কলেজ ছাত্রী গৃহবধূ সোনালী

‘যদি মরে যাই তাহলে শুধু রবিনই দায়ী থাকবে’

মহানন্দ অধিকারী মিন্টু, পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি :: খুলনার পাইকগাছায় মৃত্যুর পূর্বে খুলনা বিএল ...