যৌতুকের দাবিতে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে নির্যাতন

যৌতুকের দাবিতে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে নির্যাতনজহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি, লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার সৈয়দপুর গ্রামে যৌতুকের ২ লাখ টাকা না পেয়ে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে স্বামী কামরুজ্জামান সুমনের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় শুক্রবার (৪ মার্চ) রাতে গৃহবধূ মর্জিনার বাবা মনির হোসেন বাদি হয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

আহত গৃহবধূ ইয়াসমিন আক্তার মর্জিনাকে (৩০) গুরুতর অবস্থায় লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার হাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখমের চিহ্ন রয়েছে।

অভিযোগে জানা গেছে, প্রায় দশ বছর আগে দত্তপাড়া ইউনিয়নের সৈয়দপুর গ্রামের আমীন খানের ছেলে কামরুজ্জামান সুমনের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী গোপালপুর গ্রামের ইয়াসমিন আক্তার মর্জিনার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে সুমন শ্বশুর বাড়ির কাছ থেকে যৌতুক দাবি করে আসছিলেন। এনিয়ে মাঝে মধ্যে তাদের কথা কাটা-কাটি হয়ে থাকে।

সম্প্রতি বিদেশ থেকে অসার পর পূনোরায় সুমন যৌতুক দাবি করেন স্ত্রী মর্জিনার কাছে। যৌতুক না পেয়ে বৃহস্পতিবার রাতে স্ত্রী মর্জিনাকে এলোপাতাড়ি মারধর করে আহত করেন তিনি। পরে খবর পেয়ে মর্জিনার বাবার বাড়ির লোকজন ও স্থানীয়রা মর্জিনাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

মর্জিনার বাবা মনির হোসেন জানান, বিয়ের পর সুমন তার কাছে বাড়ি করার জন্য ৫ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। মেয়ের সুখের কথা ভেবে তিনি ৩ লাখ টাকা দেন। সম্প্রতি বিদেশ এসে সুমন আরও দুই লাখ দাবি করেন। ওই টাকা না পেয়ে বৃহস্পতিবার রাতে ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা আমার মেয়ে মর্জিনাকে মারধর করেছে সুমন।

চন্দ্রগঞ্জ থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো. কাউছার জানান, গৃহবধূ নির্যাতনের ঘটনায় তিনি লিখিত অভিযোগ পেয়েছেন। বিষয়টি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ট্রেনের ধাক্কায় চুরমার ক্রসিংয়ের ওপর বন্ধ হওয়া যাত্রীবাহী বাস

স্টাফ রিপোর্টার :: জয়পুরহাটে বাস ও ট্রেনের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। তবে অল্পের ...