যুবলীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষ: গুলিবিদ্ধসহ আহত-৪, আটক-৭, অস্ত্র উদ্ধার

জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে যুবলীগের দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে এমরান ও কবির নামে দু’জন গুলিবিদ্ধসহ উভয়পক্ষের চারজন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার ভোলাকোট ইউনিয়নের আথাকরা বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

পরে পুলিশ গিয়ে পরিসি’তি নিয়ন্ত্রণ করে। গুলিবিদ্ধ কবির ও এমরানকে গুরুতর অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে। আহত অপর দু’জনকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এই ঘটনায় শনিবার ভোররাতে আথাকরা বাজারসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে সাত জনকে আটক করে পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি এলজি, একটি চাইনিজ কুড়াল ও চাপাতি উদ্ধার করা হয়।

আটককৃতরা হচ্ছে সাইদুল ইসলাম ছাইয়ান, তুহিন, আরিফ হোসেন, সুমন, সাইফুল ইসলাম পলাশসহ সাত জন। আটককৃত সবাই যুবলীগ ও আওয়ামীলীগের কর্মী বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বশির আহম্মেদ মানিক ও ছয় নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি মহিন ড্রাইভারের মধ্যে বিরোধ রয়েছে। এর জের ধরে রাতে উভয়ের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

এ সময় উভয়পক্ষ আথাকরা, দেবনগর, দেহলা ও মুক্তারপুর গ্রামে অবস্থান নিয়ে গুলি বিনিময় করে। আথাকরা বাজার এলাকার আশেপাশে রাত ১০টা পর্যন্ত থেমে থেমে গুলির শব্দ শোনা গেছে। এতে এমরান ও কবির নামে দু’জন গুলিবিদ্ধসহ উভয়পক্ষের চারজন আহত হন।

রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. তোতা মিয়া জানান, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে অভিযান চালিয়ে সাত জনকে আটক করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে একটি এলজি, চাইনিজ কুড়াল ও চাপাতি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

আ. লীগের সঙ্গে যোগ দিচ্ছে বি চৌধুরীর যুক্তফ্রন্ট

স্টাফ রিপোর্টার :: ডা. বদরুদ্দোজা চৌধুরীর (বি চৌধুরী) নেতৃত্বাধীন যুক্তফ্রন্ট আমাদের (১৪ ...