যুবতীকে ধর্ষনের মামলায় দেবর-ভাবীর যাবজ্জীবন কারাদন্ড

যুবতীকে ধর্ষনের মামলায় দেবর-ভাবীর যাবজ্জীবন কারাদন্ডজহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:: লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার শাকচর এলাকায় যুবতীকে ধর্ষনের মামলায় দেবর মাইন উদ্দিন ও ভাবী হালিমা বেগমকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। এছাড়া ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের কারাদন্ডের আদেশ দেয়া হয়।

বৃহস্পতিবার সকালে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. সাইদুর রহমান গাজী এ রায় প্রদান করেন।

অপরদিকে ধর্ষনের ফলে গর্ভজাত সন্তানকে ভিকটিম ও ধর্ষক মাইন উদ্দিনের পরিচয়ে পরিচিত হবেন এবং তার ভরন পোষনের ব্যয় বহনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য রাষ্ট্রের পক্ষে ডেপুটি কালেক্টর, লক্ষ্মীপুরকে নির্দেশ প্রদান করা হয়।

দন্ডপ্রাপ্তরা হচ্ছে, শাকচর গ্রামের মো. দেলোয়ার হোসেনের ছেলে মাইন উদ্দিন ও নুরুল ইসলামের স্ত্রী হালিমা বেগম। রায়ের সময় আদালতে আসামীরা উপস্থিত ছিলেন। অতিরক্তি পাবলিক প্রসিউকিটর এডভোকেট মো. আবুল বাসার এ রায়ের তথ্য নিশ্চিত করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০০৫ সালের ৪ এপ্রিল রাতে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে যুবতীকে ভাবী হালিমার সহযোগিতায় মাইন উদ্দিন একাধিকবার ধর্ষন করে। এতে ওই যুবতী গর্ভবতী হয়ে পড়ে।

পরে এ বিষয়ে এলাকায় একাধিকবার উদ্যোগ নিয়ে মীমাংসা না হওয়ায় ওই বছরের ৩০ অক্টোবর মাইন উদ্দিন ও ভাবী হালিমা বেগমকে আসামী করে লক্ষ্মীপুর সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন নির্যাতিত ওই নারী।

একই বছরের ২১ নভেম্বর আসামীদের অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জসিট দেয় পুলিশ। দীর্ঘ শুনানী ও ৮ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য শেষে আদালত এ রায় প্রদান করেন। ধর্ষনের ফলে ওই যুবতীর ঘরে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম নেয়।

 

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

নির্বাচন শতভাগ সুষ্ঠু হবে না

স্টাফ রিপোর্টার :: পৃথিবীর কোনো দেশেই শতভাগ সুষ্ঠু নির্বাচন হয় না। তাই ...