যুক্তরাষ্ট্রে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ভাঙ্গা বিএনপি চাঙ্গা হচ্ছে 

যুক্তরাষ্ট্রে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ভাঙ্গা বিএনপি চাঙ্গা হচ্ছে বাংলা প্রেস, নিউ ইয়র্ক থেকে :: যুক্তরাষ্ট্রে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ভাঙ্গা বিএনপি চাঙ্গা হচ্ছে। আস্তে আস্তে সোজা হয়ে দাঁড়াচ্ছেন কোমর ভাঙ্গা বিএনপি। নেতৃত্বের কোন্দলে পাঁচ ভাগে বিভক্ত হওয়া বিএনপির নেতাকর্মিরা দলীয় স্বার্থে আপাততঃ ঐক্যবদ্ধ হতে যাচ্ছেন।স্থানীয় সময় গত রবিবার জ্যাকসন হাইটসের একটি রেস্তোরাঁয় অনুষ্ঠিত এক যৌথ প্রস্তুতি সভা থেকে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত কারাবন্দি খালেদা জিয়ার অবিলম্বে মুক্তির দাবিতে জোরদার আন্দোলনের নতুন কর্মসূচি ঘোষনা করেন।
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি সকালে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য থেকে বিএনপির নেতাকর্মিরা ওয়াশিংটন অভিমূখে পদযাত্রা এবং দুপুরে হোয়াইট হাউজ ও মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালনের ঘোষনা দেন।
নিউ ইয়র্কে পাঁচ ভাগে বিভক্ত বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মিরা উক্ত যৌথ প্রস্তুতি সভায় অংশ নেন।আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি সোমবার কখন ও কোথা থেকে পদযাত্রা শুরু করবে এবং হোয়াইট হাউজ ও মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সামনে কীভাবে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হবে তা নিয়ে বিস্তর আলোচনা করা হয়।  যৌথ প্রস্তুতি সভায় বক্তব্য দেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি নেতা আব্দুল লতিফ সম্রাট, সোলায়মান ভূইয়া,ফিরোজ পাটোয়ারী, আব্দুল বাতেন ,জিল্লুর রহমান জিল্লু, মো: হেলাল উদ্দিন, এবাদ চৌধুরী, সাইখুর খান হারুন,শরাফত হোসেন বাবু,জসিম ভূইয়া, সেলিম রেজা, মোহাম্মদ উদ্দিন, মিজানুর রহমান ভূইয়া মিল্টন, আব্বাস উদ্দিন দুলাল,আব্দুস সবুর,গিয়াস উদ্দিন, ডা: মজিবুর রহমান মজুমদার,পারভেজ সাজ্জাদ ও ডা: তারেক জামান প্রমুখ।
সাভায় বক্তারা বলেন, খালেদা জিয়াকে ভয় পায় বলেই সরকার আগামী নির্বাচনে নীল নকশা বাস্তবায়ন করতেই তাকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে কারাবন্দি করেছে। প্রবাসের জাতীয়তাবাদী দলের নেতাকর্মিদের সমস্ত শক্তি দিয়ে দেশনেত্রীকে মুক্ত করে আনতে হবে।তাই আসুন তাঁর মুক্তির দাবিতে দেশের নেতাকর্মিদের মত আমরাও সোচ্চার আন্দোলন গড়ে তুলি। আন্দোলনের মধ্য দিয়েই তাঁকে আমরা মুক্ত করে নিয়ে আসবো।
বক্তারা আরো বলেন, দেশের বর্তমান পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠার বিকল্প নেই। প্রতিটি দেশপ্রেমিক, গণতান্ত্রিক মানুষের দায়িত্ব সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই যে ফ্যাসিস্ট সরকার যারা দেশের মানুষের বুকে পাথরের মতো চেপে বসেছে, তাদের অপসারণ করে দেশের গণতন্ত্রকে মুক্ত  করতে হবে। অনুষ্ঠানের মাঝে গণস্বাক্ষর কর্মসূচির অংশ হিসেবে উপস্থিত নেতাকর্মিরা গণস্বাক্ষরে অংশ নেন।
দেশনেত্রী কারাগারে যাবার সময়ে যে কথা বলে গেছেন যে, আপনারা গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করবেন, অবিচল থাকবেন, মাথা নত করবেন না এবং শান্তিপূর্ণভাবে গণতান্ত্রিক উপায়ে এর প্রতিবাদ জানাবে, আন্দোলন করতে থাকবে। তাঁর সেই কথামতোই যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির নেতাকর্মিরা তাঁর মুক্তির জন্য আন্দোলন চালিয়ে যাবে বলে উল্লেখ করেন বক্তারা।
অনুষ্ঠানে আবুল কাশেম, কাজী আজম, মাহফুজুল মাওলা নান্নু , মোহাম্মদ খালেক,আবু তাহের,আতিকুল আহাদ,  মার্শাল মুরাদ, জাহাঙ্গীর সোহরাওয়াদী,খলকুর রহমান, মাজহারুল ইসলাম জনি, মোশারফ সবুজ,মেয়র আবুল কালাম আজাদ,জাকির হাওলাদার, মো: আলমগীর মূধা, আক্তার হোসেন বাদল,ড:নুরুল আমিন পলাশ,আহসান উল্লাহ বাচ্চু,আহসান মামুন,এস আহমেদ রুমেল, মো: রেজাউল ভূইয়া,জসিম উদ্দিন সবুজ, কাওসার আহমেদ, রুহুল আমিন নাসির, কে এম রফিকুল ইসলাম ডালিম ও ইমরান শাহ রন উপস্থিত ছিলেন।
Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে যে প্রতিবেদন দিল মেডিকেল বোর্ড

ষ্টাফ রিপোর্টার :: বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর প্রতিবেদন ...