মৌলভীবাজারে সরকারী চিকিৎসকদের ধর্মঘট অব্যহত

মৌলভীবাজার জেলায় সরকারী চিকিৎসকদের ডাকা অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট অব্যাহত রয়েছে। সরকারি দায়িত্বে অবহেলা করে  ডা. মাহমুদুল আহমেদ রনক গত বৃহস্পতিবার মৌলভীবাজার শহরের দি ল্যাব এইড এইড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে রোগী দেখছিলেন। এই অপরাধে তাকে ভ্রাম্যমান আদালত এক মাসের সাজা দেন। এর প্রেক্ষিতে চিকিৎসকরা তিন দফা দাবিতে গত শুক্রবার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট আহবান করে কর্মবিরতি পালন করছেন।

মৌলভীবাজার জেলা বিএমএ সুত্রে জানা যায়, শনিবার বিকেলে জেলা বিএমএ কার্যালয়ে এক জরুরী সভায় বসেন নেতৃবৃন্দ। জেলা সভাপতি ডা. সাব্বির আহমদের সভাপতিত্বে সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সভায় সিন্ধান্ত নেওয়া হয় সাজা প্রাপ্ত নির্দোষ চিকিৎসককে এই মামলা থেকে বেকসুর অব্যাহতি দান, ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকারি ম্যাজিষ্টেরেটর অপসারন ও চিকিৎসকের সাথে অশুভন আচরনের শাস্তি নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত ধর্মঘট অব্যাহত থাকবে। সভায় উপস্থিত সকলের  সিদ্ধান্তক্রমে ডা. সাব্বির আহমদ, ডা. শাহজাহান কবির, ডা. ইয়াহিয়া, ডা. আব্দুল হাদী শাহীন ও ডা. পলাশ রায়ের সমন্বয়ে ৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ ব্যাপারে পরবর্তী করণীয় কার্যক্রম সম্পর্কে সব ধরনের সিদ্ধান্ত নিতে এই কমিটিকে ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে।

জেলা বিএমএ সভাপতি ডা. সাব্বির আহমদ রবি বার দুপুর ১টায় এ প্রতিবেদক কে মিনিটে বলেন, নির্দোষ চিকিৎসকের জামিন নয় দায় থেকে পুরাপুরি অব্যাহতি এবং আদালত পরিচালনাকারী ম্যাজিষ্ট্রেটের অপসারন না হওয়া পর্যন্ত চিকিৎসক ধর্মঘট চলবে। তবে উর্ধতন কর্তৃপক্ষ সমাধানের  আশ্বাস দিয়েছেন। তারা যেকোন সময় জুরুরী ্‌সভায় বসবেন।

জেলা  প্রশাসক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, সরকারি কাজে নিয়োজিত লোকজন আইনগতভাবে ধর্মঘট পালন করতে পারেন না। তাই চিকিৎসকদের উচিত কর্মবিরতি ছেড়ে জনস্বার্থে কাজে যোগদান করা।

ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডট কম/সজল দেব/মৌলভীবাজার

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

গরম পানি পানে ১০ উপকার

নিউজ ডেস্ক :: পানি পানে অনেক উপকার তা আমরা সবাই জানি। তবে ...